উচ্চশিক্ষায় কেন অষ্ট্রেলিয়া, স্কলারশিপ এবং সুযোগ-সুবিধা

প্রফেসরের প্যারায় এবং নিজের আলসেমী স্বভাবের কারনে লিখতে একটু দেরী হয়ে গেলো । যা হোক, সবাইকে অনুরোধ করবো যদি এই পর্বটি পড়ে থাকেন, তাহলে মনোযোগ দিয়ে পড়ুন । হয়তো একটু সময় নষ্ট হবে কিন্তু আশা করি অনেক তথ্য উপকারে আসবে –

১. উচ্চশিক্ষায় অষ্ট্রেলিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান:

অস্ট্রেলিয়া বিশাল একটি দেশ হওয়া সত্বেও তার স্থায়ী বাসিন্দা মাত্র ২.৪ কোটি এবং অস্থায়ী ভিসায় আমার মত প্রায় ১ কোটি এর কাছাকাছি । অস্থায়ীদের অধিকাংশই ছাত্র । আর ছাত্রদের অধিকাংশই  Undergrad । জনসংখ্যা কম হওয়ার কারনে অষ্টেলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় সংখ্যাও কম । সর্বশেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী অষ্ট্রেলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা ৪৩ টি। তার মধ্যে দুটি আন্জার্তিক বিশ্ববিদ্যালয় (বাংলাদেশে যেমন আইইউটি) এবং একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় । ২০১৫ সালে Q.S র‌্যাঙ্কিং অনুসারে অষ্ট্রেলিয়াতে মোট ৮টি বিশ্ববিদ্যালয় আছে যাদের অবস্থান র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫০ এর ভিতরে । এদেরকে সংক্ষেপে  Group-8 or G-8 বলে । নামগুলো লেখলাম না google করে দেখতে পারেন । ১৫-২০ টি বিশ্ববিদ্যালয় আছে যাদের র‌্যাঙ্কিং ৩৫০ এর ভিতরে । আর বাকিগুলোর অধিকাংশের র‌্যাঙ্কিং ৮০০ এর ভিতরে । তাই উচ্চশিক্ষায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অবস্থান খারাপ না এটা বলা যায়।

২. ডিগ্রিসমূহ:

উচ্চশিক্ষায় অধিকাংশের পছন্দের ডিগ্রিহলো Masters by Coursework, Masters by Research (MRes) and Doctor of Philosophy(PhD) । কোর্সওয়াকে খুব একটা স্কলারশিপ থাকে না । সর্বচ্চো স্কলারশিপ টিউশন ফি মওকুফ । তাও খুব একটা Common Scenario না । স্কলারশিপ শুধু প্রদান করা হয় রিসার্চ ডিগ্রিগুলোতে (i.e. MRes and PhD) । আবার MRes এ স্কলারশিপ দেওয়া হয় খুব কম । বেশিরভাগ scholarship প্রদান করা হয় PhD তে । তবে অনেক বিশ্ববিদ্যালয়  Conditional MRes leading to PhD প্রোগ্রাম চালু করেছে । সেইসব বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রোগ্রামের আওতায় মাস্টার্সে স্কলারশিপ পাওয়া তুলনামূলক সোজা ।

৩. কেন আসবো?

কেন আসবো এটা আপনার সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত ব্যাপার হলেও যেসব সুবিধা পাওয়া যায় তা উল্লেখ করলাম। প্রথমত, Mres and PhD দুই রিসার্চ ডিগ্রিতে কোন ক্লাস নেই তাই এক্সাম রিলেটেড কোন প্যারা নেই । ক্লাস নেই বলে প্যারা নাই কোন ক্লাসটেস্ট এবং অ্যাসাইনমেন্টেরও । দ্বিতীয়ত, ধরে নিন এখানে সুপারভাইজার আপনার পিতার সমান । আপনার সাথে education related দায়বদ্ধতা শুধু সুপারভাইজারের সাথে । এই নিয়ে তৃতীয় কোন ব্যক্তি মাথা গলাবে না ।দুই একটা খারুশ সুপারভাইজার ছাড়া আপনি কখন ল্যাবে আসবেন যাবেন সেটা নিয়ে কেউ কখনও মাথা গলাবে না, এমনকি সুপারভাইজারও না । আপনার সাথে সুপারভাইজারের একসপ্তাহ বা দুই সপ্তাহ অন্তর মিটিং থাকে, সেখানে আপনি ঐ সপ্তাহের হলফনামা বয়ান করবেন। তৃতীয়ত, আবহাওয়া: আমি সিডনীতে থাকি বলি, সেখানকার আবহাওয়া সম্পর্কে এক বাক্যে বলতে পারি এখনকার মত Comfortable আবহাওয়াটা পাওয়া দুষ্কর। Summer এ এক বা দুদিন তাপমাত্রা ৩৫-৪০ ডিগ্রি থাকে । যেদিন এরকম হবে, সেই রাত্রিতে ঠান্ডা পড়বেই কিংবা পরবর্তী দিন বৃষ্টি হবেই। আর বছরের অধিকাংশ সময়ই তাপমাত্রা ১৫-২৫ ডিগ্রির মধ্যে Vary করে বলেই বছরের অধিকাংশ সময়ই আপনি লেপ মুড়ি দিয়ে ঘুমাবেন। চতুর্থত, পরি্চ্ছন্নতা:  এখানে রাস্তাঘাট সম্পূর্ণ ধুলাবালিমুক্ত এবং পরিচ্ছন্ন । দেখা যাবে, আপনি একই কাপড় দিয়ে অনেকদিন কাটালে আপনি অস্বস্তিবোধ করবেন না । পঞ্চমত, ধর্মনিরপেক্ষতা: এখানে কে কি ধর্মপালন করছে তা নিয়ে কারো মাথাব্যথা নেই । সবাই নিজের কাজেই ব্যস্ত ।

৪. স্কলারশিপ:

অষ্ট্রেলিয়াতে সব ভার্সিটি মোটামুটি দুই ধরনের স্কলারশিপ প্রদান করে-

  • International Post Graduate Research Scholarship (IPRS) Scholarship:

IPRS স্কলারশিপ আপনার Tuition Fee+ Living Cost + Health Insurance+ Visa Fee বহন করে। (For PhD Only)

  • University Scholarship :

University Scholarship আপনার Tuition Fee+ Living Cost বহন করে । কিছু কিছু ভার্সিটির এই স্কলারশিপ Health Insurance ও Cover করে। (For MRes and PhD)

দুই ধরনের স্কলারশিপে আপনাকে Living cost হিসেবে Yearly দেওয়া হবে ২৬,২০০-৫০০ অষ্ট্রেলিয়ান ডলার । আপনি যদি IPRS না পেয়ে, ভার্সিটি স্কলারশিপ পান Health Insurance এবং ভিসা ফি বাবদ অতিরিক্ত খরচ হবে প্রায় দেড়লক্ষ টাকা । আর সকল সুযোগ সুবিধা IPRS এর সমান । সাথে আছে কিছু সুবিধা:

  • স্কলারশিপ পেলে Visa Processing এর জন্য আপনাকে লাখ লাখ টাকা ব্যাংক Balance দেখাতে হবে না।
  • আর আরেকটি সুবিধা হল, এখানে এক-দুটি ভাসির্টি ছাড়া ৯৯% ভার্সিটিতে Apply করার জন্য কোন Application Fee নেই, যেটা USA কিংবা কানাডাতে আছে ।
  • আরেকটি কথা এখানে USA কিংবা Canada এর প্রফেসর ফান্ডিং নেই । থাকলেও সেটা Rare Case।

৫. আবেদনের সময়:

বছরে মোটামুটি দুটি রাউন্ড হয় । Major Round এবং Minor Round। Major রাউন্ডে আবেদনের সময়সীমা ভার্সিটিভেদে জুন-আগষ্ট পর্যন্ত Vary করে। আর এই রাউন্ডে সবচেয়ে বেশি স্কলারশিপ থাকে । Minor Round সাধারনত জানুয়ারির মাঝামাঝি থেকে মার্চ পর্যন্ত Vary করে এবং স্কলারশিপের সংখ্যাও অপ্রতুল ।

আবেদন করার আগে আপনাকে Professor Manage করতে হবে । Manage হলে আপনাকে একটা Research Proposal লিখতে হয় এবং সেই Research Proposal দিয়ে Apply করতে হয়। তবে সর্বপ্রথম     Professor Manage এর জন্য আপনাকে Email করতে হবে ।

এখন আমার কিছু ব্যক্তিগত অনুযোগ:

১. দয়া করে আমাকে কোন Personal Question করবেন না, যেমন আপনার সিজিপিএ কত, আপনার IELTS কত, আপনি কত ফান্ডিং পান, আপনার Email এর Format টা দেন।

২. দয়া করে আমাকে জিজ্ঞাসা করবেন না, এই ভার্সিটি ভালো না কি ঐ ভার্সিটি ভালো, এই প্রফেসর ভালো না ঐ প্রফেসর ভালো

৩. IELTS এবং GRE নিয়ে প্রশ্ন

আমি প্রথমপর্বে উল্লেখ করছিলাম অষ্ট্রেলিয়ায় কোন GRE লাগে না, IELTS লাগে তাও ৬.৫ । IELTS এর স্কোর স্কলারশিপ পেতে কোন ভূমিকা রাখে না ।

৪. দয়া করে আপনার প্রোফাইলের ব্যক্তিগত তথ্য লিখে আমাকে Text করবেন না । কারন কি প্রোফাইল থাকলে কেমন সম্ভাবনা থাকে তা নিয়ে হায়ারস্টাডি গ্রুপে প্রচুর document আছে । বেশি সমস্যা হলে কমেন্ট সেকশনে লিখুন । খুব Specific Question হলে আমাকে Text করুন । কিন্তু সবাই In generalized text করলে reply দেওয়াটা খুবই বিরক্তের উদ্রেক করে ।

৫. হায়ারস্টাডির লেখার এই দাওয়াইগুলো বিশেষত ভার্সিটির তৃতীয়বর্ষ্ থেকে শুরু করে সিনিয়র মানুষদের জন্য লেখা । তাই First year এবং second year এর ছেলেরা যদি এখন research proposal নিয়ে দৌড়াদৌড়ি করো তা শুধু Time Killing ছাড়া কিছু না । তোমাদের প্রথম দায়িত্ব সিজিপিএ বাড়ানো এবং Higher study এর পোষ্টগুলোর সাথে Touch এ থাকা ।

৬. USA, Canada কিংবা Europe এর Procedure সম্পর্কে কোন Specific Question Ask করবেন না, এই ব্যাপারে আমার জ্ঞান হিমাঙ্কের নীচে।

উপরের কথাগুলো অনেকাংশে রূঢ় মনে হলেও আমি আন্তরিক ক্ষমাপ্রার্থী । ভাই আমিও তো মানুষ, রোবটতো নই । একজন মানুষের পক্ষে একই রকমের ৫০-৬০ টি Text এর উত্তর দেওয়া কি সম্ভব?

আজকের জন্য থামি । চতুর্থপর্বে থাকবে, কিভাবে প্রফেসরকে Email নামক প্রেমপত্র করবেন এবং পঞ্চমপর্বে, কিভাবে Application করবেন।

একান্তে

সায়েদুল মোরসালিন

Graduate Research Student

Macquarie University, Australia


উচ্চশিক্ষার ইতিকথা –চতুর্থ পর্ব

উচ্চশিক্ষার ইতিকথা-পঞ্চম পর্ব

উচ্চশিক্ষার ইতিকথা – কীভাবে শুরু করব এবং কিছু সাধারণ ভুল


আরো পড়তে পারেনঃ