যারা জার্মানীতে আছেন তাদেরকে একটা মাগনা পরামর্শ-

ভিটামিন ডি নিয়া আসলে কখনোই আমাদের টেনশন ছিলোনা কারণ সব ভিটামিন খাইতে হইলেও আমাদের শরীর সূর্যের আলোর উপস্থিতিতে ভিটামিন ডি বানাইতে পারে আর অন্তত বাংলাদেশে থাকতে আল্লাহ রহমতে সূর্যের আলোর অভাবতো ছিলোনা তবে জার্মানীতে কিন্তু অবস্থা সেই রকম না তার মানে সূর্যের আলোর অভাবে আমরা সঠিক পরিমাণ ভিটামিন ডি বানাইতে পারিনা। আর খাবার থেকে যেই ভিটামিন ডি আসে তা চাহিদার ১০ ভাগের ১ ভাগ।আমাদের প্রতিদিনের চাহিদা ২০ মাইক্রোগ্রাম আর খাবার থেকে আসে গড়ে ২.৫ মাইক্রোগ্রাম।ভিটামিন ডি এর অভাবে হতে পারে হাড়ের বিভিন্ন সমস্যা যেমন হাড় সরু হয়ে যায় কিংবা ভঙ্গুর হয়ে যায় যেগুলার খুব কঠিন কঠিন নাম আছে অস্টিওপোরোসিস, অস্টিওম্যালাশিয়া ইত্যাদি। তাই সময় থাকতে সাবধান। এখন উপায়??

সহজ সমাধানঃ ভিটামিন ডি সাপ্লিমেন্টস, কোথায় পাবোঃ সব সুপার মার্কেট যেমন আলদি,রেভে এগুলায় খুব কম দামেই পাওয়া যায় যেমন ১৪টা ট্যাবলেটের কোটা মাত্র ৭০-৯০ সেন্ট।ব্যবহারবিধিঃ খুব সহজ!!প্রতিদিন একটা টেবলেট (২৫ মাইক্রো গ্রাম) আর এক গ্লাস বা মগ পানিতে দিলেই মিশে যাবে।

বেশি খাইয়েন না কিন্তু। আবার টক্সিসিটি হতে পারে কারন এইটার আপার লিমিট ৪৫ মাইক্রোগ্রাম তাই টেবলেট দুইটা দুইবেলায় খাইয়েননা তাইলে আবার কিডনি স্টোন হতে পারে।একদিনে একটাই যথেষ্ট।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ সর্ব সাধারনের জন্য পোস্ট তাই টেকনিক্যাল টার্মস এভয়েড করা হইছে।


 

রাহানুর আলম শোভন
টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি মিউনিখ
এমএস ইন নিউট্রিশন এন্ড বায়োমেডিসিন
উইন্টার ২০১৫-১৬।


প্রাসঙ্গিক খবরঃ


আরো পড়তে পারেনঃ