গত কয়েক বছরের কিছু টুকরো ঘটনা থেকে বিষয়টি নিয়ে লেখার তাগিদ আসে। ঘটনার সাথে কোনো বা কতিপয় ব্যক্তিবর্গের কাজের ধারা যদি মিলে যায়, ব্যাপারটি মোটেও কাকতালীয় নয়; বরং তাকে অথবা তাদের কাজ কারবার জানানোর জন্যেই লেখাটি লেখা হয়েছে। ঘটনাগুলো যদি আপনার সাথে ঘটে, কানে পানি ঢোকান, সুধরে নিন, চুপ করে বসে থাকলে এর জন্যে দায়ী কেবল আপনি!

2

নমুনাগুলো দিচ্ছি:

১. জনৈক বড়ভাই এবং আপা একজন/একাধিক সমাদৃত মানুষ অনেকে তাহাদের গুনগানে মুগ্ধ এবং ওনার কাছে গেলেই মুস্কিল আসান এমন ধারনা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে আপনি এসে থাকলে সময় থাকতে শুধরে যান নাহলে পরে বিপদে পরবেন। নিজের কাজ নিজে করতে শিখুন!

২. দেশী হোক আর বিদেশী, কারো বাসায় থেকে অথবা ওই বাসার ঠিকানায় রেজিস্ট্রেশন করলে লিখিত কন্ট্রাক্ট নিয়ে নেবেন এবং কন্ট্রাক্ট সই করবার আগে দরকার হলে গুগল অথবা অন্যকারো সাহায্য নিয়ে অনুবাদ করে পুন্খানো পুন্খানো ভাবে সব কিছুর মানে বুঝে নিবেন। বাড়ি ভাড়ার টাকা কখনো ক্যাশে দিবেন না বরং ব্যাঙ্ক ট্রান্সফার করবেন যাতে কোন মাসের বা কি উদ্যেশ্যে টাকা দেয়া হয়েছে পরিস্কার ভাষায় সংক্ষেপে লেখা থাকে। প্রয়োজনে পরে কাজে দেবে।

৩. যদি জনৈক বড়ভাই/আপা আপনাকে দিয়ে ছুট-ফরমায়েশ খাটাতে চায়, ভদ্রতা করে তা করবেন না কারন পরে তা অভ্যাসে পরিনত হতে পারে। না বলতে শিখুন!

৪. দুই-এক সময় কেউ বিপদে পড়লে মানবতার খাতিরে সাহায্য করা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার কিন্তু তারমানে এই না যে আপনাকে তার বাচ্চাদের নিয়মিত স্কুলে নিয়ে যেতে হবে বা তাদের সঙ্গে সময় কাটাতে হবে। আপনি বাংলাদেশ থেকে পড়াশোনা করতে এসেছেন বুয়ার চাকরি নয়; যদি করতেই হয় ঘন্টা প্রতি স্ট্যান্ডার্ড পারিশ্রমিক নিয়ে কাজটি করবেন। কোনো কাজই ছোট বা বড় নয়।

৫. কেউ আপনাকে স্পনসরশিপ লেটার দিয়েছে কিন্তু পরবর্তিতে হুমকি দিচ্ছে আপনাকে এই দেশ থেকে চলে যেতে হবে…আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন আমরা বুদ্ধি দেব; অবশ্যই বেআইনি কোনো বিষয়ে আমাদের কাছ থেকে সাহায্য আপনি পাবেন না!

৬. সবকিছু রেডিমেড পাবার চিন্তা এবং অভ্যাস ত্যাগ করুন। নিজের যোগ্যতা এবং সামর্থ অনুযায়ী করে নিন। যা পারবেন না, তার জন্যে লোক দেখাবার দরকার নেই আর অনুরোধে ঢেকি গিলবেন না; দম বন্ধ হয়ে যেতে পারে!

৭. আপনাকে কেউ যদি ভিক্ষা দেয়/দান করে তা নেবার আগে পেছনের রাজনীতি একটু ভালো করে বুঝে নেবেন। মনে রাখবেন, চোখে দেখে যা নিঃস্বার্থ মনে হয় তা নিঃস্বার্থ নাও হতে পারে।

2

ভালো থাকুন আর বোকামি করবেন না। বোকামির মাশুল আপনাকেই গুনতে হবে।

আমি এই লেখা লেখার সময় বারবার একটা প্রশ্নই মাথায় আসছে “পোলাপাইন এত বেক্কল কেন“এবং “পোলাপাইন এত সুবিধাবাদী কেন“।

স্পন্সরশীপ(Sponsorship) এর মূলো – প্রবাসী ঠগ থেকে সাবধান