অন্যান্য অনেক ব্যাংকের মতো ঢাকা ব্যাংকের মাধ্যমেও জ়ার্মানিতে ব্লক একাউন্টের টাকা পাঠানো যাচ্ছে। ঢাকা ব্যাংকের এই প্রগ্রাম এর নাম হলো ‘স্বপ্নযাত্রা’। ঢাকা ব্যাংক থেকে টাকা পাঠানোর জন্যে আপনাকে যা করতে হবে তা হলো আপনাকে ঢাকা ব্যাংকের মহাখালী শাখায় যেতে হবে। সেখানে সুলতানা মাহমুদ নামের ভদ্রমহিলা ষ্টুডেন্ট ফাইল সংক্রান্ত কাজগুলো করে থাকেন।উনি আপনার কাগজ গুলো চেক করে তারপর আপনাকে সাইফুর রহমান নামক একজনের কাছে পাঠাবেন। ইনি বাংলাদেশ ব্যাংকের পারমিশন নেওয়ার ব্যাপারে হেল্প করবে। আমি এই দুজনের ঠিকানা নিচে দিয়ে দিলাম।


How to Transfer Blocked Money from Bangladeshi Bank to a German Bank! 🙂


Sultana Mahmud: Mohakhali Branch

100 Bir Uttam A K Khandakar Road, Mohakhali C/A. Dhaka-1212

Email: [email protected]


Mohammad Saifur Rahman:

Principal Officer

Shopna Jatra Student Services Centre

Consumer Banking Division

Adamjee Court (Ground Floor)

115-120, Motijheel C/A Dhaka-1000.

Email: [email protected]


একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে 

জনতা ব্যাংক: কম খরচে বিদেশে টাকা পাঠানো

ব্লক একাউন্টের কথা – DBBL Bank

পারমিশন আনাতে ১৫ দিন সময় লাগবে। তবে ১৫ দিনের তিনচারদিন বাকি থাকতেই কল দিয়ে একটু মনে করিয়ে দেবেন ওনাকে । ওখানে কোন টাকা লাগবে না তবে উনি আবোলতাবোল বকতে পারেন যেমন আপনি আমেরিকা না গিয়ে জার্মানি কেন যাবেন, এইসব ষ্টুডেন্ট নেওয়া জার্মানির ব্যাবসা হেনতেন……আর কি। যাইহোক ওনার কথায় কান দেবেন না। উনি এমনিতে মানুষ ভালো।

একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে 

কীভাবে জার্মানির ডয়েচে ব্যাংকে ব্লক এ্যাকাউন্ট তৈরি করবেন? (০৮- জুন- ২০১৫)

ব্লকড একাউন্টের জন্য ডয়েচে ব্যাংকের ফর্ম যেভাবে পূরণ করবেন (Deutsche Bank)

ঢাকা ব্যাংক এর মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের পারমিশন আনাতে নিম্নোক্ত কাগজ গুলো লাগবেঃ

  1. E-mail copy of Appointment at the German Embassy Dhaka, Bangladesh
  2. Copy of Offer Letter
  3. Instructions for student visa applicants provided by Embassy of Germany, Dhaka, Bangladesh.
  4. Details of opening blocked account for foreign students provided by Deutsche Bank, Germany
  5. Copy of account opening confirmation by the bank.
  6. Study Plan
  7. Passport of the student
  8. Test Report Form of IELTS
  9. Certificates & Transcripts (BBS (Hons), HSC ,SSC)
  10. Undertaking of the student ( এইটা ব্যাংক থেকেই দেবে। শুধু আপনাকে সাইন করতে হবে)

কনফার্মেশন আসলে সাইফুর রহমান কে বলবেন সেটা যেন উনি ব্রাঞ্চ অফিসে পাঠিয়ে দেন তাহলে আপনাকে আবার কষ্ট করে মতিঝিল যেতে হবেনা। তো এইবার ১৫ দিন বসে থাকুন আর বাকি কাগজ গুলো রেডি করতে থাকুন।

একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে 

ভিসা পাননি ? জেনে নিন ব্লকড একাউন্ট এর টাকা কীভাবে ফেরত আনবেন

কোনো কারণে জার্মানি আসতে পারবেন না? How to withdraw money from your blocked account

এর পরবর্তী কাজ হলো ঢাকা ব্যাংকে ষ্টুডেন্ট ফাইল খোলা। তার জন্যে আপনাদের নিম্নোক্ত ডকুমেন্টস লাগবেঃ

Savings Account Opening requirements:

  1. Student:
  1. Valid passport
  2. 4 copies photo
  3. Offer letter/Application fee acceptance letter
  4. Copy of Utility Bill ( না হলেও চলবে অথবা কারেন্ট বিল বা পানির বিলের একটা রিসেন্ট কপি নিয়ে যাবেন)
  1. Nominee:
  2. National ID Card
  3. Two copies photo

Student File Opening Requirements:

  1. Valid passport
  2. All academic transcripts & certificates
  3. IELTS/TOFEL/GREE  etc as required by offer letter
  4. Valid offer letter containing:

Course name

Course start date

Course duration

Tuition fees

Living expenses

Refund policy

একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে 

My way to legally transfer Euro 8090 to Block Account:

ব্লকড একাউন্ট নিয়ে ভাবনা! আর না! আর না!! BLOCK account updates 23rd Jan 2015

একটা সুবিধা আছে এখানে।সেটা হলো যদি আপনার পরিচিত কারো ঢাকা ব্যাংকে একাউন্ট থাকে তাহলে আপনাকে সেভিংস একাউন্ট না খুললেও হবে। শুধু ষ্টুডেন্ট ফাইল খুললেই হবে।সেক্ষেত্রে ৫১৭৫ টাকা লাগবে। ষ্টুডেন্ট ফাইল খুলতে একদিন লাগবে।যেদিন যাবেন, সেদিনেই হয়ে যাবে।তো এরপর প্রশ্ন থাকে টাকা  পাঠাবেন কিভাবে? এর জন্যে আপনি যেকোন ব্যাংকের চেক নিয়ে যেতে পারেবন। সেক্ষেত্রে চেক থেকে টাকা কালেকশন করতে দুই একদিন সময় লাগতে পারে।তারপর কালেকশন হয়ে গেলে এই টাকা ওরা জার্মানিতে আপনার একাউন্টে পাঠিয়ে দেবে। আর ক্যাশ টাকা নিয়ে গেলে সাথে সাথেই পাঠিয়ে দিতে পারবে।চেক নেওয়ার একটা ঝামেলা থাকে।সেটা হলো, অনেক ব্যাংক মানে আপনি যে ব্যাংকের চেক নিয়ে যাবেন সেখানে অনেক সময় একসাথে অনেক টাকা কালেকশনের অনুমতি দেয়না। সেক্ষেত্রে আপনাকে ব্যাংকের ম্যানেজার এর সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টা ঠিক করতে হবে। একটা উদাহরন দেই। ধরুন আপনি সোনালি ব্যাংকের ৮ লাখ টাকার চেক নিয়ে গেলেন। কিন্তু আপনার ব্যাংক যে জেলা বা শহরে অবস্থিত সেখানে একসাথে ৫ লাখ টাকার বেশি কালেকশন করা যায় না। তখন ঢাকা ব্যাংকের ওরা এই চেক থেকে টাকা পাঠাতে গেলে ঝামেলায় পড়বে। তাই আগে থেকে সব খোঁজ নিয়ে যাবেন। যাইহোক এরপর আপনার টাকা জার্মানিতে পৌছে যাবে। তারপর দুইদিনের মধ্যে কনফার্মেশন পেয়ে যাবেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ দয়া করে ওনাদের অযথা মেইল বা কল করে বিরক্ত করবেন না। ফোনে বা মেইল করে যতটুকু জানতে পারবেন তার চেয়ে বেশি ভালো হবে যদি সশরীরে সেখানে গিয়ে সব জেনে আসেন।

সবার জন্যে শুভকামনা রইলো 🙂

এছাড়া পড়তে পারেনঃ