জার্মানিতে স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেসিং এ খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হল স্টুডেন্ট ব্লকড একাউন্ট খোলা। বর্তমানে জার্মান এমব্যাসি, ঢাকা ব্লকড একাউন্ট খুলবার জন্য Deutsche Bank এবং Fintiba GmbH কে অনুমোদন দিয়েছে। অর্থাৎ বাংলাদেশ থেকে স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেসিং এর জন্য উপরোক্ত দুইটি ব্যাঙ্কের যেকোনো একটিতে ব্লকড একাউন্ট খুলতে হবে। আমি এই লেখায় চেষ্টা করবো ডয়েচে ব্যাংক এ স্টুডেন্ট ব্লকড একাউন্ট খোলার সামগ্রিক প্রসেস বর্ণনা করতে ।

ব্লকড একাউন্ট খোলার জন্য আবেদন করার আগে অবশ্যই সর্বশেষ নির্দেশনা জানবার জন্য জার্মান এমব্যাসির ওয়েবসাইট চেক করে নিবেন- http://www.dhaka.diplo.de/contentblob/4854126/Daten/7904375/Checkliste_DB.pdf

এপ্লিকেশন ফর্ম পূরণ

একাউন্ট ওপেনিং এর জন্য একটি এপ্লিকেশন ফর্ম পূরণ করতে হবে। সর্বশেষ আপডেটেড ফর্ম ডাউনলোড করুন এই লিঙ্ক থেকে- https://www.deutsche-bank.de/pk/konto-und-karte/konten-im-ueberblick/internationale-studenten1.html?tp=forms&ae=parsys-tabs-tabsParsys-tabpanel_1536556080-tabPanelParsys-accordion-accordionParsys-accordionentry
ডয়েচে ব্যাংক কিছুদিন পরপরই এই ফর্মটিতে পরিবর্তন আনে। তাই আপনি অবশ্যই ব্যাংক এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সবচেয়ে লেটেস্ট আপডেটেড ফাইলটি ডাউনলোড করে নিবেন।
এই ওয়েবসাইটের Forms সেকশন থেকে Opening a bank account/blocked account for foreign students ফাইলটি ডাউনলোড করুন এবং ধীরে ধীরে ফিল আপ করুন। ফর্মটি ফিল আপ করবার জন্য আপনি Adobe Acrobat Reader, Foxit PDF Reader, Wondershare PDF Element ইত্যাদি যেকোনো একটি সফটওয়্যার ব্যাবহার করতে পারেন। এই ফাইলের প্রথম ৮ পেজে দেয়া সকল নির্দেশনা/স্যাম্পল খুব ভালো মতো পড়ে নিবেন। এবং এরপর ৯ নাম্বার পেজ থেকে ফর্মটি ফিল করা শুরু করবেন। ফর্মে পেজ রয়েছে ৭ টি (পেজ ৯-১৫)। এই সাতটি পেজই ভালো মতো ফিল আপ করে, তারপর প্রিন্ট করে আপনি এমব্যাসিতে জমা দিবেন।
ফর্মটি কিভাবে ফিল আপ করবেন সেটি ভালো মতো বোঝার জন্য আপনি এই ভিডিও টিউটোরিয়ালটি দেখতে পারেন- https://youtu.be/4ZToeihKJSQ

আশা করছি এই ভিডিও টিউটোরিয়ালটি দেখলে ফর্ম ফিল আপ সম্পর্কিত আপনার সবধরনের দ্বিধা কেটে যাবে। তারপরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আমি এখানে আবারো উল্লেখ করে দিচ্ছি—
১/ ফর্মটি ফিল আপ করবেন আপনার পাসপোর্টে দেয়া তথ্য অনুসারে।
২/ ফর্মে Title এ কিছু লিখার দরকার নেই। এই ঘরটি মূলত যাদের Dr. বয়া অন্য কোন একাডেমিক টাইটেল রয়েছে তাদের জন্য।
৩/ Registered address এর জায়গায় অবশ্যই আপনার পাসপোর্টে দেয়া স্থায়ী ঠিকানা লিখবেন। অন্য কোন ঠিকানা লিখলে ফর্ম বাতিল। আপনি যদি বর্তমানে এই স্থায়ী ঠিকানায় নাও থাকেন তাহলেও কোন সমস্যা নেই, কারণ ব্যাংক আপনার এই ঠিকানায় কিছুই পাঠাবে না। এইটা কেবলই একটা ফর্মালিটি।
৪/ ফর্মে Tax ID number or equivalent personal identification number in this country এর ঘরে আপনি আপনার পাসপোর্ট নাম্বার অথবা ন্যাশনাল আইডি নাম্বার দিতে পারেন। আমি আমার একাউন্ট খোলার সময় আমার ন্যাশনাল আইডি নাম্বার ব্যাবহার করেছিলাম এবং নিচে ব্র্যাকেটে (NID) লিখে দিয়েছিলাম।
৫/ On opening the account, funds of € _ _ _ _ _ _ _ (or equivalent) will be transferred এই ঘরে লিখেবেন 8800.00 । তবে এই এমাউন্ট পরিবর্তন হতে পারে। পরিবর্তিত এমাউন্ট সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য জানতে জার্মান এমব্যাসির ওয়েবসাইটে এই পিডিএফ ফাইলটি – http://www.dhaka.diplo.de/contentblob/1669296/Daten/8070102/Merkblaetter_Studentenvisa_Download.pdf অবশ্যই পড়ে নিবেন। January 2018 আপলোড করা সর্বশেষ আপডেটেড পিডিএফ অনুসারে এমাউন্ট লিখা আছে €8800। তাই আপনি ব্যাঙ্ক এর ফর্মেও এই একই এমাউন্ট লিখবেন। এবং পরবর্তীতে এই পরিমাণ অর্থ আপনার ব্লকড একাউন্টে ট্রান্সফার করবেন।
৬/ এরপর Origin of these funds এর ঘরে আপনি আপনার ইনকাম সোর্স এর কথা উল্লেখে করতে পারেন অথবা Family Member লিখে দিতে পারেন। যদি নিজের ইনকাম সোর্স এর কথা বলেন তো আপনাকে নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্ট এর স্টেটমেন্ট দিতে হবে। আর যদি ফ্যামিলি মেম্বার এর কথা উল্লেখ করেন তাহলে সেই ফ্যামিলি মেম্বার এর ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট পাঠাতে হবে ফর্ম এর সাথে। আমি আমার একাউন্ট খোলার সময় নিজের ইনকাম সোর্স এর কথা উল্লেখ করেছিলাম এবং নিজের ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট দিয়েছিলাম।

Deutsche Bank Sparkasse Volksbank ডয়েচে ব্যাংক, স্পারকাসে, ফল্কসব্যাংক ব্লকড একাউন্ট Blocked account German Student Visa জার্মান স্টুডেন্ট ভিসা

৭/ Enclose supporting document(s) এর ঘরে লিখবেন Account Statements.
৮/ I anticipate an additional annual transaction volume of € _ _ _ _ _ _ _ (or equivalent) এই ঘরটি খুবি গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি ভবিষ্যতে দেশ থেকে আরও ইউরো ট্রান্সফার করতে চান তাহলে এই ঘরে সেই এমাউন্টটি (আনুমানিক) লিখবেন। আর যদি ভবিষ্যতে কোন ইউরো ট্রান্সফার করবার ইচ্ছা না থাকে তাহলে এই ঘরে অবশ্যই 0 লিখে দিবেন। এই ঘরটি যদি ফাঁকা রাখেন অথবা ফিল আপ না করেন তাহলে কিন্তু আপনার এপ্লিকেশন ফর্ম বাতিল করে দিবে।
৯। আপনি যদি টাকা আপনার নিজের একাউন্ট থেকে না পাঠান, অর্থাৎ অন্য কারো ব্যাঙ্ক একাউন্ট থেকে টাকা পাঠান তাহলে The funds will not be transferred by me. Instead, they will come from এবং My relationship with this person is as follows ঘর দুইটি সেই বাক্তির তথ্য দিয়ে পূরণ করে দিবেন। আর যদি টাকা নিজের একাউন্ট থেকে পাঠান তাহলে এখানে আর কিছু লিখার দরকার নেই।
১০/ কনফার্মেশন এর জন্য যোগাযোগের ঠিকানা হিসেবে ইমেইল এড্রেস এর ঘরে ঠিক দিবেন।
১১/ দ্বিতীয় পেজে সেকশন টু তে Bank account for private assets এর ঘরে টিক দিবেন।
১২/ সেকশন থ্রি তে I am acting for my own account এর ঘরে টিক দিবেন ।
১৩/ চতুর্থ পেজের সেকশন সিক্স এ আপনার ভার্সিটির নাম এবং লোকেশন (শহরের নাম) উল্লেখ করে দিবেন। আপনি হাতে যেই ভার্সিটির অফার লেটার আছে সেই ভার্সিটির তথ্য দিবেন এইখানে। তবে পরবর্তীতে (একাউন্ট ওপেনের পর) আপনি যদি অন্য কোন ভার্সিটিতে পড়তে যেতে চান তাহলেও কোন সমস্যা নেই। এই সম্পর্কে আপনার কোন দ্বিধা থাকলে আপনি এই লিঙ্কের- https://www.deutsche-bank.de/pk/konto-und-karte/konten-im-ueberblick/internationale-studenten1.html?tp=faqs&ae=openaccount FAQ সেকশনটা একবার পড়ে নিতে পারেন। এখানে স্পষ্ট করে লিখাই আছে যে-
After the account opening I decided to study at another university / in another city. What do I have to do?
— There is no need to do anything for you. Your account can be used in any city in Germany. We require no information about a possible change of the place of study.
১৪/ সেকশন সেভেন এবং এইট এর ঘরে টিক দিবেন অবশ্যই।
১৫/ পঞ্চম পেজে সেকশন টেন এ তারিখ (যেই তারিখে ফর্ম এমব্যাসিতে জমা দিবেন) এবং সিটির নাম (ঢাকা) লিখবেন।
১৬/ খেয়াল করে দেখুন পঞ্চম, ষষ্ঠ পেজে সেকশন টেন, ইলেভেন, টুয়েলভ এবং সপ্তম পেজে একটি করে মোট চারটি ক্রস চিহ্ন রয়েছে। এই চারটি জায়গায় আপনাকে হাতে সাইন করতে হবে। তবে আপনি এই চারটি সাইন আগেই করবেন না। বরং আপনি যখন এমব্যাসিতে এই এপ্লিকেশন ফর্ম জমা দিতে যাবেন তখন ভিসা অফিসার এর সামনে এর চারটি জায়গায় চারটি সাইন করবেন। সাইন যদি ভিসা অফিসার বলবার আগেই করে ফেলেন তাহলে কিন্তু এমব্যাসি আপনার ফর্ম জমা নিবে না।
১৭/ এবার এই ফর্মটি দুই সেট প্রিন্ট করুন। এবং প্রিপেইড এনভেলপ, অরিজিনাল পাসপোর্ট, পাসপোর্টের ফটোকপি, ভার্সিটির এডমিশন লেটার, ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট সহ সত্যায়িত করবার জন্য এমব্যাসিতে জমা দিয়ে দিন। এমব্যাসি আপনার ফর্ম সত্যায়িত করে সেটা তারাই ব্যাঙ্ক এ পাঠিয়ে দিবে। সাইন করবার পড় এক সেট ফর্ম এমব্যাসি রেখে দিবে এবং আরেক সেট আপনাকে ফেরত দিয়ে দিবে আপনার নিজের রেকর্ড রাখবার জন্য। এমব্যাসিতে এই ফর্ম জমা দেবার সময় রবি থেকে বুধবার দুপুর ১ টা। দেরি করলে ফর্ম জমা নিবে না। আর সাথে ফি দিতে হবে €২০ বা প্রায় ১৮০০-২২০০ টাকা। অবশ্যই সাথে ভাংতি এবং কিছু বাড়তি টাকা রাখবেন।
১৮/ কোন অবস্থাতেই ফর্ম বা অন্য কোন ডকুমেন্ট স্টেপ্লার করবেন না। বরং কাগজগুলো একসাথে রাখার জন্য পেপারক্লিপ বয়া জেমস ক্লিপ ব্যবহার করুন। আর সব কাগজ একটা ফাইলে করে নিয়ে আসবেন। কারণ এমব্যাসিতে ব্যাগ নিয়ে প্রবেশ করা যায় না।

প্রিপেইড এনভেলপ

বাংলাদেশে প্রিপেইড এনভেলপ বিক্রি করে একমাত্র Fedex এর বনানী ব্রাঞ্চ। তাদের এই ব্রাঞ্চে গিয়ে ডয়েচে ব্যাংক এর কথা বললেই তারা আপনাকে সব ফর্ম ফিল আপ করে একটি প্রিপেইড এনভেলপ দিয়ে দিবে। সাথে একটি ট্র্যাকিং নাম্বারও দিয়ে দিবে, যেটি দিয়ে আপনি আপনার প্যাকেজটি ইন্টারনেটে ট্র্যাক করতে পারবেন। এনভেলপ কেনার সময় পাসপোর্টের একটি ফটোকপি লাগবে। এনভেলপের দাম ৩৩০০ – ৩৮০০ টাকা হবে।
তাদের অফিসের ঠিকানা-
FedEx World Service Center, House No. 16, Road No. 10A, Block H, Banani, Dhaka-1213, Tel: 88029884851

এনভেলপটি ডয়েচে ব্যাংক এর এই ঠিকানায় যাবে-
Deutsche Bank
Privat- und Geschäftskunden AG Alter Wall 53
20457 Hamburg
Germany

এমব্যাসিতে ফর্ম জমা দেয়া এবং অন্যান্য কাজের জন্য বাকি ব্লগগুলো পড়ে দেখতে পারেনঃ

ব্লকড একাউন্ট উইন্টার সেশন, ২০১৭ – একাউন্ট ওপেনিং ফরম পূরণ, এটেস্টেড ফরম পাঠানো, টাকা পাঠানো।

ব্লক একাউন্টঃ এক ফাইলই যথেষ্ট !!!

Fintiba: কি, কেন, কিভাবে?

আমার ব্লক-একাউন্টের টাকা ফেরত আনার কাহিনী (সময়কালঃ এপ্রিল ২০১৭)

“ব্লক অ্যাকাউন্ট খোলা এবং ইউরো ট্রান্সফার’’ – ট্রাস্ট ব্যাংক বাংলাদেশ

ব্লক একাউন্ট অভিজ্ঞতা – সোনালী ব্যাঙ্ক

অপারেশন ঢাকা ব্যাংক

ব্লক একাউন্টের কথা – DBBL Bank

জনতা ব্যাংক: কম খরচে বিদেশে টাকা পাঠানো