ভাই বাঙ্গালী মানুষের ভালো চায় না, নিজেরও ভালো চায় না । আপনারা নিজেরা কিছু করতেও চাইবেন না আর নীতির ধার কাছ দিয়েও যাবেন না ।  এখন কিছু বললেই অনেকে বলে উঠবে আপু জানতাম না, কই যাবো জানি না……কেন ফেইসবুক বন্ধু কেমনে বাড়াইতে হয়….মাগনা কেমনে বেহুদা প্রশ্ন করতে হয়, নিজের কাজ অন্যরে দিয়ে কেমনে করাইতে হয়, নকলবাজি/টুকলিফাই করিয়া কেমনে পাস করতে হয়, মানুষরে বাঁশ কেমনে দিতে হয় সবই জানো তা এইটা জানো না কেন ?

এখন সোজা একটা ধান্দাবাজি হিসাব মিলায়ে দেই যাতে আপনাদের মধ্যে শিক্ষিত নীতিবান কেউ বেকার থাকলে অন্তত একটা ভেজাল ছাড়া কিছু করতে ারেন….আমরা সারাজীবন থাকবো না এর আমার ও কোনো হাউস নাই মানুষের গালি গালাজ খেয়ে জনপ্রিয় হওয়ার….এইটা আমার পেষা না…আর দলাদলি করাও আমার ধাতে পরেনা…..আমারে corrupted বানায়েন না, আমি দুইর্নীতি করতে চাই না আর কেউ আমার বিশ্বাসের সুযোগ নেক তাও যাই না। ভাই এখনো পানিতে পইরা যাই নাই যে আপনাদের টাকায় আমার চলতে হবে…..তয় মাগনা জিনিসের দাম নাই।

প্রতিবেশী দেশ শ্রীলংকার কথা বলি…..একজন consultant যিনি কিনা শিক্ষিত কোনো এককালে জার্মানিতে scholarship নিয়ে পড়াশোনা করেছেন এখন টাকার বিনিময়ে তার দেশীয় ছেলে-মেয়েদের সাহায্য করেন। পার্থক্য একটাই uni ব্যাচেলর admission এ সাহায্য করেন না।

ওনার ফি নির্ধারিত সার্ভিসগুলা হলো: (টাকা কিন্তু  এডভান্স)

১. cv check, যোগ্যতা যাচাই (ফ্রি) যদি আপনার যোগ্যতা না থাকে না করে দেবেন।

২. LOM, cv, কভার letter, ফর্ম ফিলাপ করতে সাহায্য করবেন।

৩. যোগ্যতা অনুযায়ী ৩-৫ টা ইউনিভার্সিটিতে আপনকে বলবে apply করতে আপনি নিজেই সব পাঠাবেন।

৪. schlorship এর ফর্ম ফিলাপ এ সহায়তা……কিন্তু কোনো গারান্টি নেই

৫. বাস স্থান খুঁজে দিবেন কিন্তু housing contract করবেন না, টাকা ধরবেন না

৬. জার্মানিতে যেতে টিকেট লাগলে অনলাইন থেকে সস্তায় কেটে দেবেন একটা কমিশন নেবেন

৭. কথা থেকে কিভাবে জার্মানিতে পৌছে যেতে হবে বলে দেবেন

৮. জার্মান এম্বেসী শ্রীলংকাতে রেগুলার অফিসিয়ালি গিয়ে খবর দিয়ে আসেন ওনার মাধ্যমে কতজন শিক্ষার্থী এবার জার্মানিতে যাবে….

আমিতো ভাই দোষের কিছু দেখি না…..এদের উন্নতি হবে নাকি বাঙ্গালীদের উন্নতি হবে? পিচ্চি পিচ্চি ছেলে দেশ থেকে এসে মানুষের টাকা মেরে খায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিজেরই ছাত্রের কাছ থেকে প্রতারণার স্বীকার হয় জার্মানিতে, বাংলাদেশি সাহায্যের জন্যে অন্য বাংলাদেশির কাছে গেলে শুরু হয় ধান্দাবাজি।লেখক মানুষেরা অন্যের লেখা নিজের নামে চালান আবার সেই লেখা ওয়েবসাইট এ পোস্টায়ে গলাবাজি করেন…..উন্নতি আমাদের হবে না তো কার হবে !…….

তানজিয়া ইসলাম

জুলাই ২০১৪