জার্মানীতে  ডকুমেন্ট পাঠানোর ক্ষেত্রে কুরিয়ার সার্ভিসের বিকল্প নেই. কোন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে ডকুমেন্ট পাঠাবেন এই ব্যাপারে অনেকেই কনফিউজড থাকেন. কুরিয়ার সার্ভিসের ব্যাপারে আপনাকে প্রথমেই চিন্তা করতে হবে এটা কতটুকু নির্ভরযোগ্য এবং এই কুরিয়ার সার্ভিসের ট্র্যাকিং সুবিধা কেমন. এরপর আপনি নিজের সুবিধা অনুযায়ী খরচের কথা মাথায় রেখে কুরিয়ার সার্ভিস নির্বাচন করবেন. বাংলাদেশে বেশ কয়েকটা মাল্টিন্যাশনাল কুরিয়ার সার্ভিস তাদের সেবা দিচ্ছে. এগুলো হচ্ছে DHL, FedEx, TNT, UPS, Aramex. এদের মাধ্যমে ডকুমেন্ট পাঠানো সবচেয়ে নিরাপদ এবং নির্ভরযোগ্য. কিন্তু এদের মাধ্যমে ডকুমেন্ট পাঠানোর খরচ কিছুটা বেশি. তবে আপনি যদি ইউনিভার্সিটির ঠিকানায় ডকুমেন্ট পাঠান সেক্ষেত্রে প্রত্যেকটা কোম্পানি আপনাকে ডিসকাউন্ট দেবে এবং খরচ তখন অনেক কমে যাবে. ডিসকাউন্ট পেতে হলে বিভিন্ন কম্পানির বিভিন্ন নিয়ম আছে. যেমন কোন কোম্পানির ক্ষেত্রে আপনাকে হয়তো স্টুডেন্ট আইডি কার্ড দেখাতে হবে,কারো ক্ষেত্রে ইউনিভার্সিটির এড্রেস থাকাই যথেষ্ট, কারো ক্ষেত্রে হয়তো আবার দেখাতে হবে ডকুমেন্টগুলো আসলেই এডুকেশন রিলেটেড কিনা!

আপনি তাদেরকে ফোন দিয়ে জেনে নিতে পারেন ডিসকাউন্ট পাওয়ার জন্য আপনাকে কি করতে হবে. ডয়েচে ব্যাংকে ডকুমেন্ট পাঠানোর ক্ষেত্রে আপনি কোন ডিসকাউন্ট পাবেন না. খরচ বেশি হলেও আমার মনে হয় ডয়েচে ব্যাংকের একাউন্ট ওপেনিং ফর্মটা এদের কারো মাধ্যমেই পাঠানো উচিত. ইউনিএসিস্টে ডকুমেন্ট পাঠানোর ক্ষেত্রে ডিসকাউন্ট পাবেন কিনা আমি নিশ্চিত না,তবে TNT থেকে আমাকে বলা হয়েছিলো ডিসকাউন্ট শুধুমাত্র ইউনিভার্সিটির এড্রেসে পাঠালে পাওয়া যাবে অন্য কোন এড্রেসের ক্ষেত্রে এডুকেশনাল ডকুমেন্ট পাঠালেও ওরা ডিসকাউন্ট দেবেনা. অন্যদের ক্ষেত্রে ইউনিএসিস্টে ডকুমেন্ট পাঠালে ডিসকাউন্ট পাবেন কিনা আপনি ওদের ফোন করে জেনে নিতে পারেন. এছাড়াও কিছু দেশীয় কুরিয়ার সার্ভিস আছে যাদের মাধ্যমে অনেক কম খরচে ডকুমেন্ট পাঠানো যায়. এগুলো হচ্ছে OCS, Master Air, Fast Express, MM Express ইত্যাদি. এই কম্পানিগুলো আপনার ডকুমেন্ট বাংলাদেশ থেকে দুবাইতে নিয়ে যাবে এবং এরপর ওরা আপনার ডকুমেন্ট DHL কে দেবে, DHL আপনার ডকুমেন্ট নির্ধারিত ঠিকানায় পৌছে দেবে. এক্ষেত্রে DHL এর কাছে ডকুমেন্ট যাওয়ার পরে আপনি DHL এর ওয়েবসাইটেই ট্র্যাক করতে পারবেন. আমি খরচের কথা চিন্তা করে এদের মাধ্যমেই পাঠিয়েছিলাম. কোনক্ষেত্রেই কোনরকম সমস্যা হয়নি. নিচে সবগুলো কোম্পানির জন্য ডকুমেন্ট পাঠানোর খরচ দেয়া হলো. প্রত্যেকটা কুরিয়ার সার্ভিসের লোকেশন এবং ফোন নাম্বার তাদের ওয়েবসাইটে গেলেই আপনি জানতে পারবেন.

dhl

 

 

DHL
ইউনিভার্সিটি এড্রেস 2400 টাকা
অন্য এড্রেস 3500 টাকা
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩ দিন
DHL লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

tnt
TNT
ইউনিভার্সিটি এড্রেস ১৮০০ টাকা
অন্য এড্রেস ৩০৮০ টাকা
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩ দিন
TNT লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

ups
UPS
ইউনিভার্সিটি এড্রেস ১৯৯০ টাকা
অন্য এড্রেস ২৯২১ টাকা
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩ দিন
UPS লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

Fedex
FedEx
ইউনিভার্সিটি এড্রেস ২০৭৫ টাকা
অন্য এড্রেস ৩১৬৮ টাকা
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩ দিন
FedEx লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

aramex
Aramex
সব এড্রেসে ২০০০ টাকা
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩ দিন
Aramex লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

ocs
OCS
যেকোন এড্রেসে ১৪০০ টাকা.
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩-৪ দিন
OCS লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

fast
Fast Express
যেকোন এড্রেসে ১২৫০ টাকা.
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩-৪ দিন
ফার্স্ট-এক্সপ্রেস লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

master
Master Air
যেকোন এড্রেসে ১৬০০ টাকা
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩-৪ দিন
Master Air লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

mmx
MM Express
যেকোন এড্রেসে ১৩০০ টাকা.
ডকুমেন্ট পৌছানোর সময়: ৩-৪ দিন
MM Express লোকেশন এবং ফোন নাম্বার

আপনাদের সুবিধার্থে সবগুলো কুরিয়ার সার্ভিসের খরচ আবারো একসাথে তুলে ধরা হলো
Courier 2

সাধারন জ্ঞান পর্ব ১: জার্মানির ডাক ব্যবস্থা DHL