সম্মানিত পাঠক, দুই বছর আগে এমনই পৌষের এক সন্ধ্যায় আমরা প্রথম হাজির হয়েছিলাম আপনাদের প্রিয় ‘জার্মান প্রবাসে’ ম্যাগাজিন নিয়ে। ধীরে ধীরে জার্মানির বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একমাত্র এই অনলাইন ম্যাগাজিনটি আজ ২ বছর পূর্ণ করে ৩য় বছরে পদার্পণ করছে। এই আনন্দ এই গর্বের ক্ষণে আপনারা আমাদের অভিবাদন গ্রহণ করুন।

আপনারা জানেন প্রতি মাসে আমাদের ম্যাগাজিনে ভিন্ন ভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখা থাকে। কখনো মুক্তিযুদ্ধ, কখনো নারী দিবস বা মা দিবস আবার কখনোবা দেশ ছেড়ে আসার যাতনা গাথা। প্রতিবারই লেখা চেয়ে আপনাদের কাছে যেরুপ আশাতীত সাড়া পেয়েছি তদ্রুপ এই ম্যাগাজিন আপনাদের অপার ভালবাসা অর্জন করতে সফল হয়েছে। আইভোরী কোষ্টের যে বাঙালি মহিলা নার্স যিনি মা দিবসের হৃদয়নিংড়ানো লেখাগুলো পড়ে আমাদের ফোন করে জানান যে সংখ্যাটি পড়ে তিনি অঝরে কেঁদেছেন তখনই আমাদের ক্ষুদ্র এই প্রয়াসের সার্থকতা খুঁজে পাই।

আপনারা অবগত আছেন যে ম্যাগাজিনের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাই শিক্ষার্থী। আমাদের ক্লাশ, কাজ, এসাইনমেন্ট, পরীক্ষা, রিসার্চ, থিসিস এসবের ফাঁকে ফাঁকেই সমন্বিতভাবে কাজ করে প্রতিমাসে এটি আমরা প্রকাশ করি। সেক্ষেত্রে আমাদের একাগ্রতা বা দায়বদ্ধতা যতখানি এর চেয়ে অধিক ভূমিকা আপনাদের নিঃস্বার্থ ভালবাসার।  এই নিয়ত ভালবাসার প্রতিদান যেন সততার সাথে দিতে পারি সেকারণে আপনাদের শুভাশীষ আমাদের একান্ত কাম্য।

বিদেশের মাটিতে বসে দেশের প্রতি আমাদের সকলের দায়বোধ আছে। বাংলাদেশের জন্য গণতন্ত্র, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, অসাম্প্রদায়িকতা, নারী-পুরুষের সমতা, প্রগতি, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির  প্রতি আমাদের যে অঙ্গীকার, তা পূরণে আমাদের এই প্রয়াস ওজনে আধিক্যে খুবই নগণ্য ও ক্ষুদ্র সন্দেহ নেই। কিন্তু আমাদের প্রত্যয় আর উচ্ছাশা সেসব ছাপিয়ে মহিরুহে রুপলাভ করেছে। আমাদের এই কঠিন অথচ অবাস্তব নয় এমন একটি যাত্রায় অহর্নিশ আপনাদের সমর্থন আর ভালবাসাই আমাদের পাথেয়। ২য় বর্ষপূর্তির এই শুভক্ষণে আপনাদের সকলকে সকৃতজ্ঞ ধন্যবাদ। প্রিয় পাঠক, আপনারা ভাল থাকুন, ভাল থাকুক আমাদের প্রিয় দেশ- বাংলাদেশ।

 

ম্যাগাজিন ডাউনলোড/দেখতে ক্লিক করুন (প্রায় 7.60 মেগাবাইট)


আশা করি, আমাদের এই পরিবেশনা আপনারা বরাবরের মত ভালবাসবেন। গত ২ বছর ধরে নিরবিচ্ছিন্ন প্রকাশনা আপনাদের ভালবাসার জন্যই সম্ভব হয়েছে। আপনারাই আমাদের ম্যাগাজিনের প্রাণ! তাই যেকোন মতামত আমাদের জানাতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।


ম্যাগাজিন ডাউনলোড/দেখতে ক্লিক করুন (প্রায় 7.60 মেগাবাইট)


ধন্যবাদান্তে,

টিম জার্মান প্রবাসে

১২ জানুয়ারি ২০১৬

২৯ পৌষ ১৪২২

Team German Probashe

অনিচ্ছাকৃত বানানভুল ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আবেদন রইল।


চাইলে আপনিও লেখা/ছবি পাঠাতে পারেন!


 লেখা আহ্বান, এবারের বিষয়ঃ  ভাষা বিভ্রাট

অন্যান্য জীবজন্তুর সাথে মানুষের সবচেয়ে বড় পার্থক্য তার মুখের ভাষাতে। এত সহজে অনুভূতি প্রকাশ করা সম্ভব হওয়াতে মানবসভ্যতা ক্রমশ অগ্রসর হয়েছে, আমাদের জ্ঞান বিজ্ঞান, সাহিত্য, সংস্কৃতি এগিয়ে গেছে । অথচ দেশ ভেদে, অঞ্চল ভেদে এমনকি সময় ভেদে সে মুখের ভাষা বদলে যায়। অনুভূতি প্রকাশের মাধ্যমই তখন হয়ে উঠে অনুভূতি প্রকাশের প্রধান অন্তরায়। মনের ভাব প্রকাশ বিঘ্নিত হওয়ার মত বিপাক মানুষের জীবনে আর দুইটি নেই।

এবারে ম্যাগাজিনে আমরা তুলে ধরতে চাই এরকম কিছু ভাষা বিভ্রাটের গল্প। হতে পারে সেটা জার্মান, ফ্রেঞ্চ, স্প্যানিশ, মালয় ইত্যাদি অথবা দেশীয় আঞ্চলিক ভাষা সম্পর্কিত অভিজ্ঞতা। তাই দেরী না করে চটপট লিখে ফেলুন ভাষা নিয়ে আপনার কোন মজার, বিব্রতকর,তিক্ত বা ভালো লাগার অভিজ্ঞতা অথবা ভাষা সম্পর্কিত কোন তথ্যবহুল প্রবন্ধ। পাঠিয়ে দিন আমাদের কাছে নিচের ঠিকানায়ঃ

ডেডলাইনঃ ৩১ শে জানুয়ারি ২০১৬

লেখা পাঠানঃ [email protected]
অথবা পেজের ইনবক্সে পাঠানঃ www.facebook.com/pages/জার্মান-প্রবাসে/212610425614429
ছবির পাঠানোর জন্য বিস্তারিতঃ http://goo.gl/90IVlk

লেখার সাথে নাম ঠিকানা পেশা আর একটি ছবি অবশ্যই পাঠাবেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ শুধু জার্মানি বা বাংলাদেশ থেকেই নয়, যেকোন দেশের প্রবাসী বাংলাদেশিদের সাদর আমন্ত্রণ আমাদের ম্যাগাজিনে! তাই আমাদের ম্যাগাজিনে লিখতে হলে আপনাকে বাংলাদেশ বা জার্মানিতেই থাকতে হবে এমন কোন কথা নেই!


জার্মান প্রবাসে আড্ডা দিতে চাইলেঃ www.facebook.com/groups/BSAAG/(বিশ্বস্ততার সাথে ৫১,০০০+ সদস্য নিয়ে)

——————————————————————–

অনলাইনে পড়তে চাইলেঃ