মেশিন মানবের এই দেশে সময়ের সাথে প্রতিযোগিতা করে চলতে গিয়ে এতটাই সময়ের অভাব হয়ে গেছে যে বিসাগের মতো ভালোলাগার জায়গাটাতেও খুব একটা আসা হয় না…………তবে নিজের ব্যাস্ত  সময় থেকে অন্নের জন্য কিছু করার মহৎ মানুষিকতার যথেষ্ট অভাব আছে বলে অভিযোগ করলেও মাইন্ড করব না। পরীক্ষা শেষ , একটু ফ্রী সময়  তাই  ভাবলাম প্রায় এক বছরের জার্মান জীবনে কি অভিজ্ঞতা হল তা একটু শেয়ার করি। প্রায় এক বছরের জার্মান জীবনে যে  ব্যাপারটা সব থেকে বেশি   প্যারা দিয়েছে তা হল জার্মান ভাষা……… তাই জার্মান ভাষা নিয়েই আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করি…

বাংলাদেশ থেকে সব থেকে যে প্রশ্ন টা বেশি করা হয় তা হল “ভাই আমার প্রোগ্রাম যদি ১০০% ইংলিশে হয় তাহলে কি জার্মান ভাষা জানা লাগবে”???  আপানর প্রশ্নের উত্তর দেবার আগে আমার জার্মান জীবনের কিছু অভিজ্ঞতার কথা বলি……

ঘটনা ১ঃ  জার্মানীর প্রথম দিন ফ্রাঙ্কফুর্ট থেকে বাংলাদেশি ছোট ভাইয়ের বাসা থেকে সকালের নাস্তা করে বের হলাম ইয়েনার (আমার শহরের নাম) উদ্দেশে।  ইয়েনাতে  এসে রুমের চাবি পেতে পেতে প্রায় সন্ধ্যা সাড়ে ছয় টা। ৩ রুমের ফ্লাট বাকী দুইজন জার্মান, একজন আছে আর আরেকজন  নিজ শহরে গেছে। রুম ঠিক করে গোসল শেষে করে ফ্রেশ হতে হতে সাড়ে সাতটা। বাথরুমের আয়নায় নিজের মলিন মুখটা দেখে মনে পড়ল তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে সকালে ভাল করে নাস্তা করতে পারি নি আর সারাদিনে তো খারাব কোন সুযোগই পায় নি। খাবারে কথা মনে হতেই পেটে ব্যাথা আর মাথায় ঘূর্ণিপাক শুরু হয়ে গেল। ফ্লাটম্যাট ফেলিক্সের কাছ থেকে কাউফল্যান্ডের ( ‘Kaufland’ বাংলাদেশের স্বপ্ন বা এগোরার মতো একটা কিছু মনে করে নেন ) ঠিকানা নিয়ে বের হয়ে গেলাম খাবারে উদ্দেশে। কাউফল্যান্ডে ঢুকতেই মাথার ঘূর্ণিপাক যেন আরও বেড়ে গেল। উত্তর-দক্ষিন, পূর্ব- পশ্চিম, হালাল- হারাম, চাল-ডাল, তেল, লবন, আঁটা, সুজি কিছুই খুঁজে বের করতে পারলাম না। আমার কিছু ডিম আর ব্রেড দরকার এই সহজ কথাটা বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি এবং উর্দু চার ভাষার কোনটাতেই বোঝাতে পারলাম না। আমি যাই বলি ওরা আমার মুখের দিকে হ্যাঁ করে তাকিয়ে থাকে আর জার্মান ভাষায় কি বলে কিছুই বুঝি না। অবশেষে বার্থ হয়ে কিছু অ্যাপেল কিনে বাসায় ফিরলাম। বাসার দরজায় একটা চিরকুট “ I am going out, will not come back tonight. See you tomorrow, have fun. Felix”  পরের দিন রবিবার সবকিছু বন্ধ। যা অ্যাপেল নিয়ে এসেছিলাম রাতেই শেষ করে ফেলেছি। সকাল গড়িয়ে দুপুর কোন কিছু খওয়া হয়নি। সময় যত যাচ্ছে তত মায়ের কথা মনে পড়ছে, মা কিছু শুকনা খাবার দিতে চেয়েছিল ব্যাগে জায়গা কম থাকায় নিতে পারি নি। সন্ধ্যা গড়িয়ে রাত এর মদ্ধে কত বার যে ফেলিক্সের রুমের সামনে গিয়ে ফিরে আসলাম… কাল রাতে খুব বেশি কথা ও হয়নি তাই এত অল্প সময়ের পরিচয়য়ে ওকে ডিস্টার্ব করা ঠিক হবে কিনা এই ভেবে ওর দরজায় নক ও করতে পারছিলাম না। ক্ষুধার  রাজ্যে পৃথিবী অন্ধকার আর চাঁদও নাকি ঝলসানো রুটি  তাই সব উচিৎ – অনুউচিৎ পাশে রেখে রাতে  ফেলিক্সকে সব খুলে বললাম…… ফেলিক্স আমার জন্য কিছু  খাবার (পাস্তা) রান্না করে দিয়ে বলল আমি কাল বিকেলে ফী হবো তখন তোমাকে কাউফল্যান্ডে নিয়ে সব চিনিয়ে দিব ততক্ষণ তুমি আমার খাবার খাও। সেদিনই বুঝেছিলাম এটা পূর্ব জার্মানী, এখানে জার্মান ভাষা না জানলে লাইফে ভোগান্তি আছে…

*********একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে  *********

ভাসা ভাসা ভাষা

আজব ব্যাপার!

ঘটনা ২ঃ জার্মানীর বয়স প্রায় ৪ মাস। এতদিনেও একটা পার্ট টাইম জবের ব্যাবস্তা করতে পারলাম না…। সেদিন আমার বাসা থেকে অল্প কিছু দূরে একটা বড় (৪ স্টার হবে হয়ত) আবাসিক হোটেল আছে ওখানে কাজের জন্য গেলাম। রি্সিপশনের মেয়েটা ভাল ইংরেজি পারে তার সাথে কথা বলে জানতে পারলাম এখানে কাজ আছে। এমনকি ওরাও কাজের জন্য লোক খুঁজছে। আমাকে বলল মালিক নাই  আদা ঘণ্টার মধ্যেই চলে আসবে। আমি চাইলে অপেক্ষা করতে পারি। আমি ৩০ মিনিটের ওই সময়টাতে কত কিছুই চিন্তা করে ফেললাম…… কাজটা হয়ে গেলে একটা ডিএসএলআর কিনব, কিছু টাকা জমিয়ে ইউরোপ টা ঘুরে দেখাতে হবে, দামি নাইকি সূ থেকে শুরু করে আইফনে ৬ কতো কিছু। আদা ঘণ্টা পর মালিক এসে বলল ভাল ইংরেজি জানার সাথে সাথে ভাল জার্মান ও জানতে হবে……যা, আমার ডিএসএলআর, আইফনে ৬, ইউরোপ ঘুরা শেষ। শুধু ভাষা না জানার কারনে বাসার খুব নিকটে এত ভাল একটা কাজ পেলাম না। এখানেও জার্মান ভাষা…………!!!!!!

*********একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে  *********

ইচ্ছাশক্তি

ঘটনা ৩ঃ বিশেষ কোন  একটা প্রয়োজনে জার্মান এক কোম্পানির সাথে চুক্তি করতে হবে কিন্তু যে কর্মকর্তা আমার সাথে কথা বলছে সে ইংলিশ বলতে পারে না। আমার বন্ধু আমাকে আগেই জানিয়ে দিয়েছে যে ওরা নেগাটিভ কিছু বলবে না সো ওরা যাই বলুক আমি শুধু Ja  Ja (Yeah, yeah) করব। তো আমি আমার বন্ধুর দেয়া টিপস অনুসারে Ja Ja করছি। সব শেষে উনি আমাকে  কি জানি একটা জিজ্ঞাস করলো আমি যথারীতি Ja Ja করছি উনি তো আমার দিকে বড় বড় চোখ করে অবাক হয়ে তাকিয়ে রইলেন। আমার জার্মান ভাষা জ্ঞান সম্পর্কে  বুঝতে পেরে  একটা হাসি দিয়ে উনি এবার একটু ধীরে ধীরে আবার একই প্রশ্ন করলেন……তবে এবার উনার এক্সপ্রেশন দেখে বুঝলাম উনি চাচ্ছেন আমি যেন Nein (No) বলি… আমি আর দেরি না করে Nein বলে দিলাম। পেপারটা সাইন করতে গিয়ে আমার স্বল্প জার্মান জ্ঞান দিয়ে বুঝলাম উনার প্রশ্ন টা ছিল যে, জার্মানীতে আমার নামে কোন পুলিশ কেস বা কোন ক্রিমিনাল অফেন্স আছে কিনা…… আমি তো আমার বন্ধুর দেয়া টিপস অনুসারে Ja Ja (Yeah, yeah) করেই চলেছিলাম…… ভাগ্যিস ওইটা কোন কোর্ট বা পুলিশ থানা ছিল না!!!!

*********একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে  *********

জার্মান ভাষার সৌন্দর্য অথবা জার্মানদের সৌজন্যবোধ এবং আমার পর্যবেক্ষণ

ঘটনা ৪ঃআমার স্বল্প ভাষা জ্ঞান দিয়ে গত মাসে একটা জব পেয়েছি, লজিস্টিক কোম্পানি ওরা Media markt, Sartun, Rossmann আরও অনেক বড় বড় কোম্পানির অনলাইন অর্ডার সাপ্লাই করে। আমার কাজ হচ্ছে বার কোডার মেশিন দিয়ে অর্ডার গুলাকে ওকে করা।  আমার স্বল্প ভাষা জ্ঞান দিয়ে অনেক কষ্টে  কাজ চালিয়ে নিতে পারলেও সমস্যা টা হয় যখন ওরা নতুন কোন ইন্সট্রাকশন দেয় তখন আমি কিছুই বুঝি না। কান দিয়ে  কথা না শুনে চোখ দিয়ে ওদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ  বা এক্সপ্রেশন খেয়াল করি। এক্সপ্রেশন দেখে যতটা বুঝি তা দিয়েই কাজ চালাতে হয়। তখন খুব অসহায় লাগে, মনে হয় সৃষ্টিকর্তা কান দিয়েছেন শোনার জন্য আর মুখ দিয়েছেন নিজের অভিব্যাক্তি অন্নকে বোঝানর জন্য কিন্তু জার্মান ভাষা না জানার জন্য কানে শোনা ও মুখে বলার ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও আমি যেন বোধির। তবে আমি আর বোধির হয়ে থাকতে চাই না। প্রতিজ্ঞা করেছি জার্মান ভাষা শিখেই ছাড়বো । ইনশাআল্লাহ।

 

হ্যাঁ। আমারও কোর্স ল্যাঙ্গুয়েজ ১০০% ইংলিশ এবং আমার ক্লাসের ৯০% ছাত্রছাত্রী ইন্টারন্যাশনাল তারপরও আমি প্রতিনিয়ত এমন অনেক সমস্যার সম্মুখীন হয় শুধু ভাষা না জানার কারনে। আমি বা আমারা সবাই যারা জার্মান ভাষা না শিখেই জার্মানী চলে এসেছি তারা সবাই দিনে একবার হলেও এমন নানা রকম ভাষা জনিত বিপত্তির সম্মুখীন হয় আর জার্মান না শিখে আসার জন্য আফসোস করি। কিন্তু আপনারা কেন করবেন???? দেশ থেকে অন্তত A1 হলেও  শেষ করে আসেন কারন আপনি যদি মনে করেন জার্মানীতে এসে জার্মান শিখবেন তাহলে দেখবেন সময় চলে যাবে কিন্তু জার্মান শেখার জন্য সময় বের করতে পারবেন না।

*********একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে  *********

যে ১০ টি মুভি দেখে রিয়েল জার্মান ভাষা শিখতে পারে- মুভি দেখে জার্মান শেখা (Learn German with Movies: 10 Great Movies for Learning Real German)

অ্যাকাডেমিক জীবনের বাইরেও সোশাল বা সামাজিক জীবন বলে একটা কিছু  আছে যেখান থেকে আপনি একাডেমীক শিক্ষার থেকেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ ও বাস্তবিক শিক্ষা পাবেন আর জার্মান সোশ্যাল লাইফটা অনেকটা জার্মান ভাষার ওপর নির্ভরশীল। জার্মান মানুষগুলো অনেক ফ্রেন্ডলী তাই আপনি যদি জার্মান ভাষাটা পারেন তাহলে আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি জার্মানীতে কাটানো সময় টুকুই হবে আপনার জীবনের সবথেকে শ্রেষ্ঠ সময়……!!!!

(আমার ল্যাপটপে উইন্ডোজ ১০ এ অভ্র ভাল কাজ করছে না তাই কিছু spelling errors এড়াতে পারলাম না। সে জন্য দুঃখিত)

যারা ভিসা পেয়েছেন বা পাবার অপেক্ষা করছেন সবার জন্য শুভকামনা…।।

*********একই রকম /এই রিলেটেড আর্টিকেল পড়তে পারে  *********

জার্মান ভাষা শেখা কোর্স বাংলাদেশে না জার্মানিতে?

বাংলাদেশের কোথায় শিখবেন জার্মান ভাষা ?