Offer letter পাওয়া থেকে শুরু করে Deutsche Bank-এ টাকা পাঠানো, আলহামদুলিল্লাহ্‌ my every phase went too smoothly. But সমস্যা হলো accommodation manage নিয়ে । Studenkolleg-এ apply & mailing for request to give a seat in waiting list এর পরও waiting list-এর supportive document না পাওয়ায়, আমরা যে দু’বন্ধু একসাথে apply করেছিলাম, অপরজন তারই পূর্ব পরিচিত একজনকে (জার্মান নিবাসী মাস্টার্স স্টুডেন্ট) residence বিষয়ে help করতে বলে । As Bochum & Cologne are adjacent cities, তো ঐ ছেলেটা আমাদের Bochum Studenkolleg-এ seat manage করে দিবে বলে আশ্বাস জানায়, we both had to deposit Euro 220 each for that. So, আমরা দুজনই accommodation confirmation in studenkolleg Bochum পাবার পর, নিজ নিজ টাকা deposit করে দিই ঐ ছেলের দেওয়া বাংলাদেশী এক অ্যাকাউন্টে ।

বিজ্ঞপ্তিঃ

স্পন্সরশীপ(Sponsorship) এর মূলো – প্রবাসী ঠগ থেকে সাবধান

আমার Visa interview date ছিলো ১৫.০২.২০১৫, আমি visa refusal letter পাই ৩০.০৩.২০১৫ । যেখানে সাফ শব্দে লেখা ছিলো, “Your submitted residential document was found total fake”. আমার বন্ধু তখন আমাদের ডকুমেন্টে mentioned property manager-কে মেইল করে জানতে পারে, They have no reservations on our names. এদিকে আমি আপিল করার জন্য, new accommodation status (Both from A&W Hostel, Koln and Studentenkolleg Koln waiting list) manage করতে সক্ষম হই । ১২.০৪.২০১৫ German Embassy আমাকে মেইল করে জানতে চায়, for rescuing future applicants to give them the details from where I got false accommodation document?

আমি ১৩.০৪.২০১৫ সকাল ৮:১৫টায় ফোন করলে, আমাকে ওরা ওদিনই পাসপোর্ট সহ বেলা ২টায় দেখা করতে বলে with all the supportive documents I have in my support. As the conversation with the boy (masters student who lives in Germany) wasn’t directly made between us, it was between my friend and him. So I had only that fake residential document and Euro 220 deposited slip in Deutsche bank as my supportive document. After confronting embassy on that day, I was clearly told that because of this false document I’ve not got my visa. They told me, if you want to apply for appeal, you may proceed. You may request your university to extend the deadline. After mailing to Cologne University of Applied Sciences, they strictly answered me that their last deadline is 15.04.2015.

আমি তবুও ১৪.০৪.২০১৫ আপিল করে আসি । ১৯.০৪.২০১৫ তারিখে সকালে ওরা ফোন দিয়ে আপিল রেজাল্ট রেডি বললো । But আপিলের রেজাল্টও নেগেটিভ । Because of submitting false documents earlier, they are refusuing my appeal request on this ground. And here, #MyDream_For_Masters_in_Germany_Summer2015 ended.

এমব্যাসির বাসস্থান রেগুলেশন এবং আমাদের করণীয়

নিজের এই experience share করার কারণ, যে যত পরিচিতই হোক, please make sure your own thing by yourself. Don’t put trust on someone so easily as we did. এই গ্রুপের আপু-ভাইয়ারা অনেক helpful.. ছোটবড় যে কোনো ব্যাপার, uni-assist এর টাকা জমা দেয়া থেকে শুরু করে-Deutsche bank এর টাকা জমা দেয়া; সব ব্যাপারে solution না পেলেও idea পাওয়া যায় (y) …

আর আরেকটা ব্যাপার, it doesn’t matter whoever s/he is, kindly ইনবক্সে এসব query/help সম্পর্কিত ব্যাপার-সেপার আলাপ- আলোচনা করবেন না ।

  • প্রথম কারণ, you might be cheated like me.
  • দ্বিতীয় কারণ, আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কারণ, info ছোটো কিংবা বড়, আপনার query-টা ঠিক আগামীকালই আরেকজনের  কাজে লাগতে পারে… So why not an open discussion 🙂 !!

lesson learnt

And lastly, Keep me in your Prayer and Best of Luck for all the applicants of Winter’2015.