সিনেমা,নাটক আর বাস্তবিক জীবনে অনেক বার শুনেছি কেঁটে সাত টুকরো করে নদীতে ভাসিয়ে দিবো……ডিজিটাল যুগে আমারা প্রয়োজনের তুলনাই একটু বেশিই এগিয়ে গেছি। তাই আর শুধু ৭ এ আমাদের জ্বালা মিটে না, আজ আমারা ৭ কে ৯ গুন বাড়িয়ে (৭*৯=৫৪) ৫৪ টুকরা বা ৫৪ টা গুলি করি। আর পুলিশ তা গণপিটুনি বলে বন্দুকের নলে তেল দেই। আজ পুলিশ ঘুষ, চাঁদাবাজি, আর প্রকাশে মানুষ হত্যা করছে, সেদিন হয়ত বেশি দূরে নয় যেদিন থানাই হবে ধর্ষণের নিরাপদ স্থান।

লঞ্ছ ডুবে ৭০ জনের বেশি মানুষ মারা গেল…… কারো কোন মাথাব্যাথা নেই। ৭০ জন না হয়ে হয়ত ৭০০ জন হলে নৌ মন্ত্রী ছুটে গিয়ে স্বজন হারানো পরিবার কে ৭০০০ টাকা করে অনুদান দিয়ে সাদা পাঞ্জাবীতে একটুকরো কালো কাপড় গুজে ৭ ঘণ্টার শোক ঘোষণা করত। আর একজন মন্ত্রী বউয়ের দেয়া লাল পাঞ্জাবীটা পড়ে এসে বলত, “রাবিশ, ১৭ কোটি মানুষের দেশে ৭০০ মানুষ মরতেই পারে। এটা কোন বড় সংখ্যা নয়”। মানুষের মৃত্যু যেখানে শুধু নাম্বার গেম, সেখানে সভ্যতার আর মানবিকতার আশা করা বোকামি ছাড়া আর কিছুই না।

একটু আগে পড়লাম, “মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা ও লেখক ভিজিৎ রায়কে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীরা অভিজিৎ রায় ও তাঁর স্ত্রী নাফিজা আহমেদকে কুপিয়ে জখম করে। আহত অবস্থায় তাঁদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অভিজিৎ”(প্রথম আলো)। যতুটুকও বুঝতে পারলাম তিনি একজন নাস্তিক লেখক ছিলেন, কিন্তু তাই বলে একজন মানুষকে এইভাবে কুপিয়ে হত্যা……? কোন মানুষকে এমন নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করা নৈতিকতা বা ধার্মিকতা অথবা আস্তিকতা সাপোর্ট করে বলে আমার জানা নেই।

স্বাধীনতার ৪৩ বছরে আমারা ২.৫ গুন জনসংখ্যার প্রোডাকশন বৄদ্ধি করেছি কিন্তু .২৫% ও মানবিকতা বৄদ্ধি করতে পারি নি। কেও মুক্তি যুদ্ধের ইতিহাস কে পুঁজি করে রাজনীতি করে আর কেও একহাতে প্রেটল বোমা আর অন্য উচু করে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও বলে মিছিল করে। ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে যে দেশটা অর্থনৈতিক ভাবে মাথা তুলে দাঁড়ানোর কথা, অল্প কিছু মানুষের ক্ষমতা হারানোর ভয় আর ক্ষমতা দখলের লোভের কারনে সেই দেশটাতে আজ শুধু মৃত্যুর মিছিল!!!

পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকি না কেন……৮০০০ মাইল দুরের ছোট্ট ওই ভূখণ্ডটিই আমার পরিচয় যেখানে আমার সবথেকে প্রিয় মানুষ গুলো বসবাস করে। তাই দেশটাতে যখন শুধু মৃত্যু আর মৃত্যুর নিউজ শুনি তখন প্রিয় মানুষগুলোর ছবি চোখের সামনে ভেসে ওঠে, অজানা কোন ভয়ে শরীরটা কেঁপে ওঠে………………।।

স্বাভাবিক মৃত্যুর নিশ্চয়তা কি আমারা কোন দিনও পাব না???????