মৃত্যু, অনিবার্য এক সত্যি। প্রবাসে আমরা যারা অবস্থান করি, তাদের অনেকের অন্তিম যাত্রার শেষ ঠিকানা প্রিয় স্বদেশ। মৃত্যুর পর স্বজনের কাছে নিজের বা প্রিয় স্বজনের মৃত্যুদেহ পাঠানোর জন্য খরচের পরিমান অবস্থাভেদে ১৫০০-৪০০০ ইউরো হয়ে থাকে। স্বজন হারানো পরিবারের বা কাছের মানুষের ঐ সময়ে অর্থের সংকুলান নাও থাকতে পারে। আলোচ্য প্রবন্ধে উল্লেখিত সংস্থার সদস্য হয়ে থাকলে, মৃত্যুর পর  তারাই আপনার এবং আপনার কাছের একজনের খরচ সম্পূর্ণ বহন করবে।

এ সংস্থার সদস্য হলে সবচেয়ে বড় সুবিধার হল, এই সংস্থার সদস্য হয়ে আপনি অন্যের অন্তিম যাত্রার খরচ বহন করে পুণ্যের ভাগীদার হতে পারবেন।

এই সংস্থার মাসিক ফি বয়সভেদে একেক রকম আর তাও বছর শেষে সর্বমোট মৃত স্বজনের খরচের উপর নির্ভর করে সামান্য কম বেশী হয়ে থাকে।

যদি সময় সুযোগ থাকে আপনিও এই সংস্থার সদস্য হয়ে থাকতে পারেন আর জানিয়ে রাখতে পারেন আপনার কাছেরজন বা আমাদেরকে আপনার সদস্য নাম্বার।

সদস্য হওয়ার লিংক

ww.ukba.eu/de/online-registrierung/

মৃত সদস্যের মৃতদেহ স্থানান্তর এবং সরকারী বিষয় সংস্থা কর্তৃক পরিচালিত হবে।  তাদের দেওয়া সুবিধার মধ্যে রয়েছে:

  • হাসপাতাল (মৃত্যুর সনদপত্র)
  • নগর প্রশাসন (ছাড়পত্র, মৃত্যুর নথিভুক্তিসহ অন্যান্য যাবতীয় দাপ্তরিক কাজ)
  • দূতাবাস থেকে সনদ সংগ্রহ সহ অন্যান্য মৃতদেহ স্থানান্তরের যাবতীয় দাপ্তরিক কাজ
  • সঙ্গী ব্যক্তির জন্য বিমানের টিকিট
  • মৃতদেহ স্থানান্তরের সম্পূর্ণ খরচ

সদস্যের মৃত্যুর ঘটনায় অফিসিয়াল বিষয়গুলি পরিচালনা করার জন্য নিম্নলিখিত নথিগুলির প্রয়োজন:

  • পাসপোর্ট
  • পরিচয়পত্র
  • বিবাহের সনদপত্র (যদি বিবাহিত হয়)

বিস্তারিত পড়তে (জার্মান ভাষায়)

www.ukba.eu/de/amtliche_behoerdengaenge/