Question:

“করপোরেট এ জব করেন এমন একজন ওয়েল উইশার জার্মান যাওয়া নিয়ে খুব ডিমোটিভেট করলেন। ওনার পয়েন্টগুলি হচ্ছে-১. মার্কেটিং এ পড়ে ওই দেশে জব পাওয়া ডিফিকাল্ট কারন এটা স্কিল আর লাংগুয়েজ বেসড জব।২. ডিফারেন্ট ফিল্ডে জব করলেও সারাজীবন জেনেরাল স্টাফ হয়ে থাকা লাগবে কারন জার্মানরা অনেক রেসিস্ট এন্ড ওরা আমাদের এক্সিকিউটিভ লেভেল এ ডুকতে দিবে না।৩. কমার্সে পড়ে ওখানে জব পাওয়ার সুযোগ নাই তেমন আর দেশে ফিরে আসলে ওই ডিগ্রি দিয়ে কি লাভ।৪ . বিবিএ শেষ করে বাইরে মাস্টার্স করা থেকে দেশে জব এক্সপেরিয়েন্স গেইন করা উইনিং ডিসিশন হবে।উনি নিজের পয়েন্ট অফ ভিউ থেকে এই কথা গুলো বলেছেন কিন্তু আমি জানতে চাই উনি কি ঠিক বলেছেন? আমি জার্মান যাওয়ার আশা ছেড়ে দিতে চাই না আবার সব না জেনেও কিছু করতে চাই না।সো প্লিজ হেল্প মি। থ্যাংকস।” (Arfatul Jinna Yesterday at 5:56 PM)

Answer:

  • Haseeb Mahmud: সর্বপ্রথম – যথেষ্ট পরিমান জার্মান অভিজ্ঞতা না নিয়ে যদি কেউ আপনাকে জীবনের গুরত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে মনগড়া উপদেশ দেয় তাহলে ধরে নেবেন সে আপনার ওয়েল উইশার নন।এবার আসি আপনার থ্রেডের ব্যাপারে।
  • প্রথমে আপনি যে বিষয়ে পড়ালেখা করেছেন, অর্থাৎ মার্কেটিঙের একটা কনসেপ্ট দিয়ে শুরু করি। আপনারা যে প্রথম সেমিস্টারে ৪টা পি পড়েন সেখানকার একটা পি হলো পজিশনিং। আপনি নিজেকে একটা প্রোডাক্ট হিসেবে দেখুন। ভাবুন আপনি আপনাকে জার্মানিতে সেল করতে চান। আপনি ভেবে দেখুন আপনি নিজেকে কীভাবে পজিশনিং করবেন। সেক্ষেত্রে আপনার একটা SWOT এনালাইসিস দিয়ে শুরু করুন। এই SWOT এনালাইসিস করলেই বুঝতে পারবেন আপনি এখানে কাজ পাবেন কি কাজ পাবেন না।প্রথমে আসা যাক আপনার স্ট্রেন্থ কি। আমি যদি আপনার এই থ্রেডের ভিত্তিতে আপনাকে চাকুরির জন্য বিবেচনা করি তাহলে আমি আপনাকে চাকুরী দেব না। কারণ, আপনি আত্মবিশ্বাসী নন। জার্মানি দেশটার নামও ভুল লিখেছেন। আপনার লেখা পড়ে এরকম একটা বোঝাপড়ায় আসা যায় যে আপনি বাংলা বা ইংরেজি কোনটাই ভাল পারেন না। সেইক্ষেত্রে আপনি চাকুরিতে ঢুকে জার্মান ইমপ্রুভ করতে পারবেন এই আত্মবিশ্বাস কীভাবে পাওয়া যাবে?তো এখানে আপনার স্ট্রেংথ মাপতে গিয়ে উইকনেস পাওয়া গেল। ভাষা না জেনে এখানে ভালো করা একেবারেই অসম্ভব।
  • এবার আসি অপারচুনিটির বিষয়ে। উপরে যারা বলেছেন ক্লারিকাল জব করতে হবে তারা বিষয়টা খুব সঠিক বলেননি। ক্লারিকাল জব জার্মানিতে মিডল ম্যানেজমেন্ট। মিডল ম্যানেজমেন্টে সাধারণত আমাদের প্রোফাইলের লোক, অর্থাত ইউনি থেকে মাস্টার্স, অভিজ্ঞতা আছে এরকম, লোক নেয় না। আমাদের প্রোফাইলের জন্য আপার ম্যানেজমেন্ট (সরকারি টার্ম ব্যবহার করলাম) জব দেখতে হয়।এবার আসা যাক শেষ পয়েন্ট থ্রেট বিষয়ে। প্রথম থ্রেট হলো আপনাকে চাকুরি পাবার জন্য নির্ধারিত ১৮ মাসে (আমি একদম হালনাগাদ তথ্য জানি না) আপনাকে কাজ পেতে হবে। এর মধ্যে আপনার কাজ না হলে আপনি সাড়ে তিন বছর পর দেশে যাবেন একটা জার্মান ডিগ্রি নিয়ে। বাংলাদেশের জব মার্কেটে জার্মান ডিগ্রির চাইতে সাড়ে তিন বছর ইন্ডাস্ট্রি এক্সপেরিয়েন্স দামি।
How to Conduct a SWOT Analysis for Your Small Business
  • বাকি অংশউপরের মন্তব্য থেকে পরিস্কার যে আপনার প্রসপেকট জার্মানিতে খুব সুবিধার না। ইতিবাচক থেকে নেতিবাচক পয়েন্ট অনেক বেশি। কিন্তু আপনি যদি চান জার্মানিতেই আসবেন এবং এখানে সেটল করবেন তাহলে আপনাকে আপনার দুর্বলতাগুলো নিয়ে কাজ করতে হবে। কিছু পয়েন্ট বলি –
  • ১। প্রথমে আপনাকে ঠিক করে বের করতে হবে নেটিভ, ইইউ সিটিজেন বাদ দিয়ে কী পরিস্থিতিতে আপনাকে একটি ভালো কোম্পানি চাকুরী দেবে। তাদের কি এপ্লিকেন্ট কম? না। যারা এপ্লাই করেছে, অর্থাৎ আপনার কম্পিটিটর তারা কি আপনার চাইতে খারাপ? না। অনেক অংশে তারা আপনার থেকে ভাল। তারা জার্মান জানে, ইংলিশ জানে, এখানকার এনভায়রনমেন্ট জানে। আপনি ওদের থেকে অনেক পেছনে। সুতরাং আপনাকে এরকম কিছু অফার করতে হবে যেটাতে আপনার কম্পিটিটিভ এডভান্টেজ আছে। সেটা কী হতে পারে? ভেবে বের করুন।
  • ২। ভাষা জানতে হবে। আপনার খেয়াল রাখতে হবে এখানে পড়ালেখা কঠিন। বাংলাদেশের ভালো ছাত্র এখানে এসে দেদারসে ফেল করে বসে থাকে। আপনি হয়তো সাথে টুকটাক কাজও করতে চান। এতোসব করে স্টুডেন্ট অবস্থায় পাশাপাশি ভাষা শিখে ফেলা খুব কঠিন। আপনি যেহেতু বিজনেস ফিল্ডে সেহেতু এঞ্জিনিয়ারদের মতো ভাষা না জেনে চাকুরি পাবেন সে সম্ভাবনা অনেক কম। আমার পরামর্শ দেশ থেকে বি১ লেভেল কমপ্লিট করে আসেন। এখানে গোয়েঠে ইন্সটিউটে নিজের পকেটের টাকা দিয়ে বি২ করবেন। ডিগ্রি কমপ্লিট করার সাথে সাথে একটা ভালো রেজাল্ট, বি২ সার্টিফিকেট থাকলে আশা করি আপনি এখানে টিকে যাবেন খুব ভালো ভাবেই। চাকুরিতে ঢুকে তারপর সি১ করবেন।মূল কথা হলো আপনি নিজেকে সেল করতে চাইলে আপনাকে প্রথমে আয়নার সামনে দাড়িয়ে SWOT analysis করতে হবে ইগোটাকে দূরে সরিয়ে। তারপর যেখানে কমতি আছে সেটা মেরামত করবেন। এটা করতে পারলে কোথাও আটকাবে না।

ব্যবসায় প্রশাসন নিয়ে পড়াশুনা ও ক্যারিয়ার – Business Management Studies and job opportunity in Germany