সম্প্রতি বাংলাদেশে ধারাবাহিক ধর্ষণের বিরুদ্ধে গড়ে ওঠা দেশব্যাপী আন্দোলনের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে জার্মানির রাজধানী বার্লিনবাসী বাংলাদেশীদের উদ্যোগে এক মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। আজ ১১ই অক্টোবর রোববার বিকেল ৩টায় বার্লিনে বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে ব্যানার ফেস্টুন পোস্টার নিয়ে সবাই একত্রিত হয়। উক্ত মানববন্ধনে বক্তারা ধর্ষকের সঠিক সাজাদানে সরকারের ব্যর্থতা ও ধর্ষণরোধে সামাজিকভাবে করণীয় নিয়ে বক্তৃতা করেন। 

বক্তব্য রাখছেন রাফি

বক্তব্যে উঠে আসে ধর্ষণের কারণ ও এটি প্রতিরোধের নানা উপায়। তাঁরা বলেন, ধর্ষণ হল মানুষ হিসেবে আরেকটা মানুষের প্রতি সর্বোচ্চ অপরাধ। এটি বন্ধ করতে একদিকে যেমন সরকারকে বিচারব্যবস্থার উন্নতি ঘটিয়ে কঠোর সাজার বিধান করতে হবে, অপরদিকে সামাজিকভাবে এই জঘণ্য অপরাধকে নির্মূল করার জন্যে জনসাধারণের রয়েছে করণীয়। বক্তাদের মাঝে কয়েকজন জোর দেন মানবিক আর নৈতিক শিক্ষাব্যবস্থার প্রতি। তাঁদের কথা, শিশুদের যদি মননে মানসিকতায় নারী-পুরুষ সমান আর একে অপরের প্রতি অশ্রদ্ধা প্রদর্শন একটি নীতিহীন কাজ- এই শিক্ষা দিয়ে প্রদান করা যায় তবেই তাঁরা বিপরীত লিঙ্গের মানুষের প্রতি সম্মান নিয়ে বেড়ে উঠবে। তাঁরা শিক্ষা ব্যবস্থায় সঠিক যৌনশিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করার দাবীও তোলেন। 

বাংলাদেশিদের পাশাপাশি যোগ দেন বিদেশীরাও

বার্লিনবাসী বাংলাদেশীদের এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন খালিদ নোমান নমি, আসাদ খান,  মীর মোনাজ হক, মামুন আহসান খান, মিলন, বাবুল সায়েদ, সুমনা, তন্বী, আদিবা, সামান, সোহান, সারিকা রাফি ও হিমন সহ আরো অনেকে।

mm

By Jahid Kabir Himon

এডিটর (Editor): জার্মান প্রবাসে মাস্টার্স in Internet Technologies And Information Systems, Leibniz University Hannover. থাকিঃ বার্লিন, জার্মানিতে।

Leave a Reply