বিঃদ্রঃ পোস্টখানা মূলত নবাগতদেরকে নিয়ে লেখা হলেও, পুরাতনরা এড়িয়ে যাবেন না কিন্ত। আপনাদের জন্যও রয়েছে আকর্ষণীয় এবং গোপনীয় অনেক তথ্য। 😁😁😁
হ্যালো নবাগত কচিকাঁচার দল….


আশা করি চমৎকার একটা বিমানভ্রমণ শেষ, আপনারা অল্রেডি জার্মানি পৌছে গেছেন অথবা খুব শীঘ্রই পৌছে যাবেন।

অতীত অভিজ্ঞতা থেকে বলে যে, পোলাপাইন জার্মানির মাটিতে পা দেয়া মাত্রই, টয়লেট খোজার আগেই, মোবাইলের সিম খোজা শুরু করে।
কই নতুন দেশের বদনাছাড়া টয়লেটে, একটু প্রাকৃতিক কাজ করে, নিজেকে একটু বদনাবিহীনতার সাথে অভ্যস্ত করে নিবে। তা না করে, “বাইয়া, চিম কই !!! বাইয়া, চিম কই !!!” করতে থাকে। বেদ্দপ পোলাপাইনহক্কল। 🙄🙄🙄

অবশ্য আধুনিক যুগে অনেকের নাকি ওয়াইফাই কানেকশান/মোবাইল ইন্টারনেট ছাড়া টয়লেট-ই হয় না। উহাদের জন্য “সিম”-কিন্তু ভীষণ জরুরী। 😑😑

এছাড়া গার্লফ্রেন্ড/বউদের তো উপরি প্যাড়া আছেই। একে তো স্বামী বিদেশ বলে, তারা থাকে ভীষণ ইমোশনাল। তার উপর ঘন্টায় ঘন্টায় আপডেট না দিলে এই ধরণের অভিযোগ শুনবেন, ” আমার জামাই বিদেশ গিয়া, জার্মান মাইয়া পাইয়া আমারে ভুইলা গেছে রে !!!” #জীবন_থেকে_নেয়া 🙄🙄🙄

সো সকল ধরণের অনাকাঙ্ক্ষিত প্যাড়া থেকে মুক্তি পাবার জন্য একটা সীম কার্ডের প্রয়োজনীয়তা যে কত মারাত্মক, তা বলে শেষ করা যাবে না।
ফান এপার্ট, নতুন অবস্থায় মোবাইল ইন্টারনেট ছাড়া চলাটা ভীষণ টাফ। যেহেতু রাস্তাঘাট, লোকেশান কিছুই চেনা থাকে না, তখন মোবাইল ইন্টারনেট পুরাই একটা পথ প্রদর্শক হিসেবে কাজ করে। আর টুকটাক ছোটখাট ইনফরমেশন আর চেক ইন দেয়ার জন্য তো লাগবেই৷ কি বলেন !!! 😁😁😁

কি পরিমাণ ডাটা লাগতে পারে? (আনুমানিক)
প্রথমেই বলে রাখি। জার্মানিতে বেশিরভাগ অপারেটর-ই অনলিমিটেড কলিং এবং এসএমএস এর অফার রাখে। কিছু কিছু অপারেটর ২০০/৩০০/৫০০ মিনিট টাইপের বান্ডেল আফার রাখে।

কিন্তু আমি বলব, আনলিমিটেড কলিং এর অফারটা নিতে। কারণ প্রাইসের খুব বেশি পার্থক্য পড়ে না। আর ফ্লেক্সিবিলিটিটাও থাকে। (এখন নিশ্চয়ই ভাবতেছেন, ইশশশশ !!!! এয়ারটেল/জিপি/রবিতে যদি এই অফার থাকতো, তাইলে জরিনার সাথে কথা বলে কোপাইয়া ভাজ করে ফেলতে পারতেন!!! 😐😐😐)
আর জার্মানিতে বাসা-বাড়ি এবং ইউনিভার্সিটি, সবখানেই মোর অর লেস উচ্চগতি-সম্পন্ন ওয়াইফাই থাকে। তাই রাস্তাঘাটে চলার জন্য, ২-৩ জিবি নেট-ই এনাফ। ১ জিবিতে মাস শেষে একটু টানাটানি পড়ে যায়। তাই আমি নরমাল ইউজের ২-৩ জিবি অফারগুলোই সাজেস্ট করব।

অনেকের বাসায়/ডর্মে শুরুতে নেট থাকে না। সেক্ষেত্রে প্রথম মাসে একটা ১৫-২০ জিবির হেভি প্যাকেজ কিনতে পারেন। পরে ট্যারিফ চেঞ্জ করে নিতে পারবেন।

সিম পাব কিভাবে?
সিম দুইভাবে কিনতে পারেন। দোকানে গিয়ে অথবা অনলাইনে অর্ডার করে৷ অনলাইনে অর্ডার করা একটু সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। সেক্ষেত্রে আমি নবাগতদের জন্য দোকানে গিয়ে সিম কেনাটা প্রেফার করব। কিন্তু বলা বাহুল্য যে, দোকানের চেয়ে অনলাইনে আপনি অনেক চিপ এবং ভাল অফার পাবেন।

দোকান পদ্বতিঃ
আপনি যদি সিম কিনতে O2/Vodafone/T-Mobile এর মত দোকান গুলোতে যান, তাহলে ওরা আপনাকে সুন্দর ইংরেজির জালে বাগিয়ে, গলা কাটা একটা অফার গছাই দেয়ার সম্ভাবনা ৯৯ ভাগ। যেটা দুই বছরের জন্য আপনার গলার কাটা হয়ে থাকবে। 😪
তাই ঝামেলা এড়ানোর জন্য আমি প্রেফার করি সুপারমার্কেট গুলোর প্রিপেইড অফার। বেশিরভাগ বড় বড় সুপারমার্কেটগুলোতেই (Aldi, Lidl, Edeka, Penny) ওরা ওদের নিজস্ব সিম বিক্রি করে। সাধারণত সিমগুলো মান্সলি বেইজড প্রিপেইড হয়ে থাকে। তাই পরবর্তীতে যদি আপনি অনলাইন থেকে কোন সিম কিনতে চান, সেইক্ষেত্রে এক্সট্রা কোন প্যাড়া নাই।

সাধারণত সিম গুলোর দাম ১০-১৫ ইউরোর মত হয়ে থাকে। সিমের দামের সাথে কিছু ওয়েল্কাম বোনাসও থাকে। আর সিমের প্যাকেটের গায়েই প্যাকেজগুলো দেয়া থাকে। আপনি যদি পরবর্তীতে রিচার্জ করতে চান, তাহলে ঐ সুপারমার্কেট থেকেই এক্সট্রা ক্রেডিট কিনতে পারবেন।

যেমনঃ Aldi সুপারমার্কেটে সিমের দাম ১২.৯৯ ইউরো। কিন্তু ১০ ইউরো ওয়েল্কাম বোনাস থাকে। তার মানে সিমের বেসিক দাম পড়ছে ২.৯৯ ইউরো। বাকিটা আপনি নিজের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। আর Aldi তে ৫/১৫/৩০ ইউরোর কার্ড কিনতে পাওয়া যায়, যা দিয়ে আপনি পরবর্তীতে রিচার্জ করতে পারবেন অথবা অন্য কোন প্যাকেজও নিতে পারবেন।

সিম কিন্তু কেনার সাথে সাথেই এক্টিভেট হয়ে যাবে না। সাধারণত একটিভেট হতে ১-২ দিন সময় লাগে। আর এই ব্যাপারে আপনাকে সুপারমার্কেটের লোকজন তেমন কোন হেল্প করতে পারবে না। অনলাইন থেকে, আপনাকেই এই কাজটা করতে হবে। বাট এটা খুব সহজ কাজ। সো চিন্তার কিছু নাই।

সাধারনত সিমের গায়েই ওদের অনলাইন পোর্টালের ওয়েবসাইট দেয়া থাকে। ঐ পোর্টালে ঢুকে, আপনাকে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সিমটিকে আপনার নামে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের সময় আপনার পাসপোর্ট/ভিসার কপি লাগতে পারে। তাই ঐ সব ডকুমেন্টস কাছে রাখবেন।

আর অনলাইন পোর্টালেই আপনাকে প্যাকেজ সিলেক্ট করে দিতে হবে। না হলে, প্রিপেইড সিস্টেমে আপনার সব টাকা কেটে ফেলবে। তাই আগে ভাগেই প্যাকেজ সিলেক্ট করে রাখতে ভুলবেন না।
সিম রেজিস্ট্রেশনের পরে ১২-২৪ ঘন্টার মধ্যেই সিম চালু হয়ে যায়। একটু পর পর ফোন restart দিয়ে দেখবেন, চালু হয়েছে কিনা।

অনলাইন পদ্ধতিঃ
অনলাইন পদ্ধতিও খুব-ই সহজ। বিভিন্ন সাইটে, বিভিন্ন রকম অফার থাকে। আপনি আপনার জন্য উপযুক্ত অফারটা সিলেক্ট করে নিতে পারেন। কিছু সস্তা সাইট নিচে দিলাম।
https://www.winsim.de/
https://www.eteleon.de/
https://www.premiumsim.de/
https://www.deinhandy.de/

এখানে আপনি প্রায়ই অফার পাবেন। তাই নিয়মিত চেক করতে পারেন।
আর বিভিন্ন কোম্পানির অফার গুলোকে কম্পেয়ার করতে চাইলে, চেক করতে পারেন এই সাইটটি। https://www.check24.de/

সাধারণত ওদের প্রতিটা অফারের-ই দুইরকম সিস্টেম থাকে। একটা হল ২৪ মাসের কন্ট্রাক্ট। আরেকটা হল মাসিক কন্ট্রাক্ট।
২৪ মাসের কন্ট্রাক্টে, আপনাকে দুই বছরের জন্য এই সিমটি নিতে হবে। এক্ষেত্রে শুরুতে আপনাকে কোন কানেকশান চার্জ (৯.৯৯ ইউরো) দিতে হবে না।
আর মাসিক কন্ট্রাক্টে, আপনাকে শুরুতে কানেকশান ফি দিতে হবে ৯.৯৯ ইউরো। এরপরে প্রতিমাসে আপনার কাছ থেকে মাসিক অফারের টাকা টা কেটে নিবে। কিন্তু সুবিধা হল, আপনি চাইলেই যখন-তখন আপনার কন্ট্রাক্টটা বাতিল করে দিতে পারবেন। আবার চালু করতে পারবেন। ধরুন আপনি দুই মাসের জন্য বাংলাদেশে বেড়াতে যাবেন। তখন আপনি চাইলে অফারটা অফ করে যেতে পারেন। আবার দেশ থেকে এসে চালু করতে পারেন।

আমি প্রেফার করব, শুরুতে ১০ ইউরো কানেকশান ফি দিতে হলেও, মান্থলি অফার নেয়াটা ভাল। এতে করে আপনার ফ্লেক্সিবিলিটি থাকবে। চাইলেই পরিবর্তন করতে পারবেন।

আর সিম নেয়ার সময়, আপনার ব্যাপারে তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। আপনার ব্যাংক ডিটেলস সহ অন্যান্য ইনফরমেশন ও দিতে হবে। আর সিম পেতে এক সপ্তাহের মত সময় লাগবে।

একই ফোন নম্বর রেখে কি অন্য অপারেটরে সুইচ করা পসিবল?
মজার ব্যাপার হল, জার্মানিতে আপনি অপারেটর চেঞ্জ করলেও, একই মোবাইল নম্বর রাখতে পারবেন। এতে করে আপনার বন্ধুবান্ধবদের কাছে, অফিস, ব্যাংক, ইন্সুরেন্স কিংবা অন্যান্য যায়গায় আলাদা করে ফোন নম্বর চেঞ্জ করার প্যাড়াটা থাকে না। এই number portability এর সুবিধা নিতে, আপনাকে পে করতে হবে ৩০ ইউরো।
আরো মজার ব্যাপার হল, আপনি যদি নতুন অপারেটরে সুইচ করতে চান, তাহলে ঐ অপারেটরও আপনাকে নম্বর চেঞ্জের জন্য কিছু বোনাস দিবে। বোনাসটা সাধারণত ১০-২০ ইউরো হয়ে থাকে।

ধরুন আপনি বর্তমানে Aldi talk এর সিম ইউজ করছেন। এখন আপনি eteleon এ একটা ভাল অফার পেয়েছেন। আপনি ঐ অপারেটরে সুইচ করতে ইন্টারেস্টেড। Aldi’র প্রাক্তন নম্বরটা রাখতে হলে, আপনাকে ৩০ ইউরো চার্জ দিতে হবে। কিন্তু এই ৩০ ইউরোর মধ্যে ১০ ইউরো eteleon company থেকে শুভেচ্ছা মূল্য হিসেবে প্রদান করে দিবে। আপনাকে দিতে হবে শুধু ২০ ইউরো।

অন্য অপারেটরে সুইচ করার প্রসেসঃ
খুব-ই সহজ। প্রথমে আপনি ডিসাইড করুন, কোন অপারেটরের কোন অফারে সুইচ করবেন।

এবার আপনার কারেন্ট অপারেটরের সাথে আপনার চুক্তি বাতিল করতে হবে। সাধারণত ওদের কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিয়ে, ইমেইল দিয়ে কিংবা লিখিতভাবে এই চুক্তি বাতিলের ব্যাপারটা জানানো যায়। এক একটা অপারেটরের জন্য, এক এক ভাবে ব্যাপারটা কাজ করে।

কিন্তু স্বল্প জার্মান জানার কারণে, অনেক সময় আমরা এই ব্যাপারগুলো সহজে করতে পারি না। এইজন্য আছে একটা সহজ পথ।
https://www.aboalarm.de/

এই ওয়েবসাইট দিয়ে খুব সহজেই আপনার যে কোন কন্ট্রাক্ট ক্যান্সেল করে দিতে পারবেন ২ মিনিটেই। কলসেন্টারে ফোন করে জার্মানে কথপোকথন কিংবা জার্মান ভাষায় রিটেন চিঠি পাঠানোর কোন প্যাড়া নাই। আপনি আপনার নাম ঠিকানা, যেই মোবাইলের কন্ট্রাক্ট ক্যান্সেল করতে চান, সেগুলো লিখে দিবেন। ওরাই বাকি ব্যাবস্থা করবে। এজন্য ওরা ৩.৯৯ ইউরো চার্জ নেয়। আপনি ২-১ সপ্তাহের মধ্যেই কন্ট্রাক্ট ক্যান্সেলেশনের কনফার্মেশন পেয়ে যাবেন। ওখানে লেখা থাকবে, কবে থেকে আপনার কন্ট্রাক্ট ডিএক্টিভেটেড হয়ে যাবে।

অনেক সময়, মোবাইল ফোনের কন্ট্রাক্টে লেখা থাকে, নুন্যতম তিন মাস আগে জানাতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনাকে ৩ মাস আগেই কনফার্ম করতে হবে।

এরপরে যেই অপারেটরের যেই অফারটা নিবেন, সেইটা অনলাইন থেকে অর্ডার করুন। অফারটা নেয়ার সময়, আপনি ফোন নম্বর একই রাখতে চান, এই অপশন্টা বেছে নেবেন। তখন ওরা আপনার কাছে আগের অপারেটর সংক্রান্ত তথ্য জানতে চাইবে। ওগুলো ফিল আপ করবেন। কোন কোন ক্ষেত্রে আপনাকে কন্টাক্ট টারমিনেশান লেটারটা আপ্লোড করতে হবে। ঐটাও করে দিবেন। বাকিটা অপারেটররা নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া করে নিবে। আপনার কাজ শেষ।

এক্ষেত্রেও আপনার সিম পেতে ২-১ সপ্তাহ সময় লাগবে। আর বাদবাকি এক্টিভেশান প্রসেস আগের মতই।

যাউজ্ঞা। এতক্ষণ ধরে যে এত এত জ্ঞান দিলাম, এগুলা কি মাগনা নাকি। 😑😑😑😑
দেশ থেকে আমার জন্য ভাল দেখে, সিমের বিচি নিয়ে আসবেন। আলু আর টমাটো দিয়া ঝোল ঝোল করে রান্না করবোনে।😍😍😍😍

আপনিও আইসেন। খেয়ে যাইয়েন। 😃😃😃

সিম কিনুন। প্রিয়জনের সাথে কথা বলুন। বউ/GF দের মধুর প্যাড়া থেকে মুক্ত থাকুন। এই কামনা করি। 😁