প্লাটফর্মে ট্রামের জন্য দাড়িয়ে আছি ৷ লক্ষ্য করলাম দুইটা জার্মান বাচ্চা ছেলে (সাদা এবং একশত ভাগ পিউর জার্মান), হাইট সর্বোচ্চ সাড়ে তিন কি চার ফিট হবে, বয়স আনুমানিক দশ থেকে এগারো ৷ ওরা আমার দিকে তাকাচ্ছে আর নিজেদের মধ্যে মুখ টিপে টিপে হাসছে আবার নিজেদের মধ্যে ফিস ফিস করছে, প্রথমে নিজের শরীরের দিকে উপর নিচ ভালো করে লক্ষ্য করলাম, গায়ের জামা কাপড় ঠিক আছে তো? চেইন টেইন ঠিক খোলা নেই তো? নাহ সব কিছুই ঠিক আছে ৷ ওরা আবারো ঘুরে ফিরে আমার দিকে তাকাচ্ছে ৷ ব্যাপার টা সন্দেহ জনক ৷ আমি ওদের ব্যাপার লক্ষ্য করছি, দেখে ও না দেখার ভান ধরে ঘাপটি মেরে আছি ৷ এবার কাধের থেকে ব্যাগ নামাইলাম, ব্যাগের দুই পাশে ছুটা পকেটে ছাতা ও থার্মোফ্লাক্স ঠিক ই জায়গা মতো আছে, ব্যাগের চেইন ও লক ৷ তাইলে ওরা এমন করে আমাকে ফলো করতেছে কেন? টেনশন বাড়তে থাকলো ৷

ট্রাম আসলো উঠে জানালার পাশে একটা সিটে বসলাম, পাশের সিটে রাখলাম ব্যাগ ৷ ঐ দুটো ছেলেও ট্রামে উঠেছে ৷ আমার বগিতেই আমার সিটের পিছেই দাড়িয়ে আগের মতোই ফুসফাস করছে নিজেদের মধ্যে ৷ ব্যাপার টা আসলেই সন্দেহ জনক ৷ আমি কিছুই বলছিনা, নিরবে মোবাইলের দিকে নজর আমার ৷

দুই মিনিট পরে ঐ দুইটা ছেলের একটা ছেলে আমার কানের কাছে এসে বললোঃ কান ইশ জেটযে হিইর? বাংলা তর্জমা হইলো, আমি কি আপনার পাশে বসতে পারি? ব্যাপার কি? পুরা ট্রাম ফাকা, এত জায়গা রেখে আমার পাশেই বসবে? গতি বিধি সত্যিই সন্দেহ জনক ৷ সন্দেহ টা পুষিয়ে রেখেই আমি বললামঃ ইয়া, কাইন প্রবলেম (হ্যা, কোন সমস্যা নেই) ৷ দুই জনের একজন পাশে বসলো আরেক জন তার মাথার কাছে দাড়ানো ৷ নিজেদের মধ্যে ফিস ফিস করছে, শোনা যাচ্ছেনা ৷ আরো দুই মিনিট পর যেটা আমার পাশে বসে ছিল, মুখ টা কানের কাছে নিয়ে দুঃখ দুঃখ ভাব করে বললোঃ হাবেন যি সুয়াই অয়রো? বিট্টে (আপনার কাছে কি দুই ইউরো হবে? প্লিজ) মনে মনে বললাম, ওরে শ্শালা, ঐ প্লাট ফর্মে এত লোক থুয়ে আমার চেহারা দেখে এদের কাছে ভোদাই মনে হইছে, ঐ জন্যে পুরা পনেরো মিনিট আমারে টার্গেট করে রাখছে ৷ আমি আরো চেইন টেইন খোলা কত কি ভেবে বসলাম ৷ এই তোদের মতলব, শালার বেটা শালারা, যা ভাগ ৷ জোরে জোরে বললাম, এস টুট মেয়ার লাইদ, ইশ হ্যাবে কাইনে গেল্ড ৷ তর্যমাঃ আই অ্যাম সরি আমার কাছে কোন টাকা নাই ৷ দুই টাই মিচকি হাসি দিয়ে নিজেদের মধ্যে কাইনে গেল্ড কাইনে গেল্ড বলতে বলতে কেটে পড়লো, আর সামনে আসে নাই ৷😊