ডিপ্লোমা শেষ করে কম খরচে কোথায় পড়তে যাওয়া যাবে দেশের বাইরে ?
সেক্ষেত্রে জার্মানি হতে পারে আপনার পরবর্তী ডেস্টিনেশন।বেশিরভাগ জার্মান বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনও টিউশন ফি নেই। তাই অন্য সমসাময়িক দেশগুলির তুলনায় জার্মানিতে পড়াশোনার ব্যায় অনেকটাই কম।

নোট : ডিপ্লোমা থেকে আবেদন করলে ইউনি-এসিস্ট সেইটা কে এইচএসসি সমমান ধরে না এবং ডিপ্লোমা পর বাংলাদেশে একবছর বা ২৫% ক্রেডিট ইউনিভার্সিটিতে সম্পন্ন করার পর ও স্টুডেন্টকলিগের জন্য বিপিডি দিবে অর্থ্যাৎ আপনি সরাসরি ইউনিভার্সিটি তে ভর্তি হতে পারবেন না ।
তাই ইউনি-এসিস্ট এর মাধ্যমে আবেদন করা আর না করা একই কথা

রেফারেন্স:আমি কমেন্ট সেকশন এ আমার পরিচিত এক ভাই এর বিপিডি অ্যাড করে দিচ্ছি সে ডিপ্লোমা করেছে এবং ১ বছর বিশ্ববিদ্যালয় এ পড়াশুনা করেছে তারপর ও তাকে স্টুডেন্টকলিগের এর জন্য বিপিডি দিয়েছে ইউনি-এসিস্ট। তার মানে ১ বছর ইউনিভার্সিটি তে পরে ও সরাসরি ভর্তি হতে পারলো না ।

এই বিষয়গুলো নিয়েই আজকের এই আলোচনা।

ডিপ্লোমা শেষ করে জার্মানি তে ব্যাচেলর করতে চাইলে আপনার জন্য রয়েছে ৩ টি উপায়। এই ৩ টি মধ্যে থেকে যে কোনো একটি উপায় বেছে নিলেই আপনি পৌঁছে যেতে পারেন আপনার কাঙ্খিত লক্ষে!

(উপায়-১)

জার্মান বা ডয়েচ ভাষায় ব্যাচেলর : যেহেতু জার্মানির প্রধান ভাষা জার্মান বা ডয়েচ তাই আপনি যদি ডয়েচ ভাষায় পড়তে চান সেক্ষেত্রে সর্বনিম্ন জার্মান বি১ (B1) ধাপ পর্যন্ত জানতে হবে।বাংলাদেশের ধানমন্ডি তে অবস্থান রত গোয়েথে ইনস্টিটিউট থেকে বি১ (B1) পরীক্ষা দিয়ে পাস করে সার্টিফিকেট নিয়ে আবেদন করতে পারবেন। ঐখানে গিয়ে স্টুডেন্টকলিগের এনট্রানস এক্সাম দিতে হবে যেটাকে “Aufnahmeprufung” বলে । ঐটা পাশ করলেই ঐ ইউনিতে স্টুডেন্টকলিগ করতে পারবেন । আর ফেইল করলে প্রাইভেটে স্টুডেন্টকলিগ করতে হবে যেটার খরচ ৬০০০-১০০০০ ইউরো হতে পারে । ঐখানে আপনাকে দুই সেমিস্টার পড়তে হবে। আপনাকে জার্মান শিখাবে পাশাপাশি একাডেমিক সাবজেক্ট ও পড়ানো হবে।

বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক স্টুডেন্টকলিগ রয়েছে তার মধ্যে সাইন্সদের জন্য হলো :

১.T-Kurs: German, Mathematics, Physics, Chemistry and Informatics

২. M-Kurs: German, Mathematics, Physics, Chemistry and Biology

আপনাকে দুই সেমিস্টারে পড়াবে । এরপর আসবে মূল এক্সাম। ঐটাকে জার্মান ভাষায় “festellungsprüfung” (University qualification exam) বলে। এটা পাশ করলেই আপনি ব্যাচেলরে এডমিশন নিতে পারবেন। এই এক্সাম পাস করার পর আপনি জার্মানির যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

(উপায়-২)

ডিপ্লোমারপর সরাসরি জার্মানি তে ব্যাচেলর পড়া যায় এমন শুধু মাত্র একটি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে যেখানে আপনি ডিপ্লোমার পর সরাসরি ব্যাচেলর কোর্স এ ভর্তি হতে পারবেন। যেহেতু এখানে সরাসরি আবেদন করা যায় তাই এখানে ইউনি-এসিস্ট এর কোনো ঝামেলা নেই । অর্থ্যাৎ আপনার বাংলাদেশে একবছর বা ২৫% ক্রেডিট ইউনিভার্সিটিতে সম্পন্ন করার দরকার নেই আপনি সরাসরি ডিপ্লোমা শেষ করে এই ইউনিভার্সিটি তে ভর্তি হতে পারবেন । বিশ্ববিদ্যালয়টির নাম হলো : ডেগেনডোর্ফ ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (Deggendorf Institute of Technology)

ইংলিশ এ ৩ টি ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যাচেলর প্রোগ্রাম রয়েছে এই বিশ্ববিদ্যালয় এ । আপনি আপনার পছন্দ মতো বিষয় বেঁছে নিতে পারেন আপনি যেই বিষয়এ ডিপ্লোমা করে থাকেন না কেন আপনি এইখানে আবেদন করতে পারবেন তার জন্য
সর্বনিম্ন আইল্টস (IELTS) প্রয়োজন ৫.৫ ।

১. Deggendorf Institute of Technology
বিষয়ের নাম : Health Informatics নোট : কোর্স মডিউল অনেক টাই কম্পিউটার সাইন্স এর মতোই।
IELTS প্রয়োজন সর্বনিম্ন : 5.5 বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Link – https://www.th-deg.de/hi-b-en

২. Deggendorf Institute of Technology
বিষয়ের নাম : Energy Systems Engineering
নোট : কোর্স মডিউল অনেক টাই ইলেকট্রিকাল/ইলেকট্রনিক এর মতোই।
IELTS প্রয়োজন সর্বনিম্ন : 5.5
বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Link – https://www.th-deg.de/ese-b-en

৩. Deggendorf Institute of Technology
বিষয়ের নাম : Industrial Engineering
IELTS প্রয়োজন সর্বনিম্ন : 5.5
বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Link – https://www.th-deg.de/ie-b-en

(উপায়-৩)

ডিপ্লোমা শেষ করে বাংলাদেশে একবছর বা ২৫% ক্রেডিট ইউনিভার্সিটিতে সম্পন্ন করে সরাসরি কিছু বিশ্যবিদ্যালয় এ আবেদন করা যায়। সেগুলো হলো

১. Hamm-lippstadt university of applied science
বিষয়ের নাম : Electronic Engineering

IELTS প্রয়োজন সর্বনিম্ন : 6 বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Link- https://www.hshl.de/en/studying/en-study-programs/en-bachelors-programs/en-electronic-engineering/

২. Hamburg Institute of Technology
বিষয়ের নাম : Engineering Science

IELTS প্রয়োজন সর্বনিম্ন : 6.5
German প্রয়োজন B1
বিস্তারিত জানতে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Link – rb.gy/zdfydx

লেখকঃ দিপ্ত বর্মন ( Dipto Bormon )