জার্মান বচন ১ঃ ” কোন জায়গা পরিষ্কার রাখার উপায় হইলো সেটা পরিষ্কার থাকতে থাকতে আবার পরিষ্কার করা।”- Porsche এর চিফ প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ার।

জার্মানিতে মাঝে মধ্যেই বিচিত্র বিচিত্র পরিস্থিতিতে পড়া লাগে। ভাবলাম সেগুলা লিখে রাখি। জার্মান বচনে এইগুলাই লিখে রাখবো।

বচনের ব্যাখ্যাঃ আমি কাজ করি দুনিয়ার অন্যতম সেরা গাড়ি Porsche এর ফ্যাক্টরি তে। করি ফ্যাক্টরির সবচেয়ে আজাইরা কাজগুলার একটা। ধোয়ামোছা আর কি। যাই হোক, গতরাত ভোর চারটায় হেড অফ প্রডাকশন এসে হাজির। আমার বসের অন্তত বিশ-তিরিশ ধাপ উপরে হবার কথা।
আমি আর দুই ভিয়েতনামি, তিনজনকে একটা বড় চেম্বার দেয়া হয়েছে পরিষ্কার করার জন্য। রুম দেখে একই সাথে খুশি আবার মেজাজ গরম। এই কাজ আমাদের জন্য নতুন। কাহিনী হইলো এইখানে গাড়ী পেইন্ট করার পর হিট দেয়া হয়।

পুরা চেম্বার আয়নার মত চকচকে! এইখানে পরিষ্কার করার কি আছে? এদের টাকা বেশি হইলে আমাদের টেকটুকা বাসায় পাঠায় দিলেই পারে! একাউন্ট নাম্বার নিয়া যা লাগলে!

যাই হোক পরিষ্কার করার মাঝামাঝি সেই বস এসে অস্থির। সে মনে হয় গল্প করার কাউকে পায় না তাই তিন গরিবের সাথে প্যাচাল পারা শুরু করলো। আমি বুঝিই নাই এই লোক পুরা ফ্যাক্টরির মাথা! তাও আবার চোস্ত ইংরেজীতে। সবাই তো একই রকম ওভারওল পরে… কেমনে বুঝতাম?
আমি মাঝখানে কিঞ্চিত ফরিয়াদ জানাইলাম এই রুম তো পরিষ্কার, এইখানে কেন আমাদের পাঠানো হয়? ভাবলাম একটু পয়েন্ট কামাই আর কি! ওস্তাদে মুচকি একটা হাসি দিয়ে পকেট থেকে মনে হয় জেট সাবান দিয়ে ধোয়া সাদা একটা রুমাল বের করলো। তারপর পুরা পরিষ্কার ফ্লোরে ঘষা দিয়ে দেখাইলো হাল্কা কালো হয়েছে। ঐ রুমাল এতোই সাদা যে বাতাসে পাঁচ মিনিট ধরে রাখলে মনে হয় তাতেও দাগ পড়তে পারে! কিচ্ছু বলে নাই আর। তারপর উপরের ডায়লগ দিয়া আরেক প্যাচাল শুরু করলো।

জিজ্ঞাসা করলো, তোমাদের কি এই কাজ করতে বোরিং লাগে? আফটার অল তোমরাও দুই দিন পরে ইঞ্জিনিয়ার হয়ে যাবা। আমি কইলাম তা তো লাগেই। সে জিজ্ঞাসা করলো বোরিং শব্দের জার্মান জানো?

আমার দুই ছটাক জার্মানে অবশ্যই সেই ওয়ার্ড নাই। সে কি জানি একটা শব্দ বললো। তারপর বলে, আসলে বোরিং শব্দের কোন সঠিক প্রতিশব্দ জার্মানে নাই। কারন বোরিং একটা নেগেটিভ শব্দ। যেটা আছে সেটার মানে ‘রিপিটেটিভ’। সেইটা কোন নেগেটিভ ওয়ার্ড না। কারন আমরা কোন কাজকেই বোরিং মনে করি না। ঐ কনসেপ্টই জার্মান জাতের নাই, তাই শব্দই নাই।

মনে মনে বললাম, পুরা জার্মানিই বোরিং, তাই আলাদা করে শব্দ লাগে না আর কি!

এতো ভাব নেয়ার কি আছে? :/