জার্মান ইউনিভার্সিটিগুলোতে ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টদের ভর্তি প্রক্রিয়া সহজ, নির্ভুল ও সহজলভ্য করার উদ্দেশ্যে জার্মানির ৪১ টি ইউনিভার্সিটি নিয়ে ২০০৩ সালে Uni-assist নামে একটা এ্যাসোসিয়েশন গড়ে তোলা হয় । এই এ্যাসোসিয়েশনের কাজ হচ্ছে ইউনিভার্সিটির রিকুয়ারমেন্টস অনুসারে ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টদের সব ডকুমেন্টস ইভালুয়েশন করা।যেসব ইউনিভার্সিটি Uni-assist এর মাধ্যমে প্রসেস করে তারা Uni-assist থেকে গ্রীনসিগন্যাল পাওয়ার পরই স্টুডেন্টদের এডমিশন লেটার ইস্যু করে । অথচ এটি সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারনা না থাকায় আবদেনের এই প্রক্রিয়াটিই আমাদের কাছে সবচেয়ে কঠিন, জটিল ও ব্যায়বহুল মনে হয়। Uni-assist এ্যাসোসিয়েশনটি কোন প্রকার ফান্ডিং না পাওয়ায় ব্যায়বহুল বিষয়টি আসলেই সত্য। যাইহউক, Uni-assist এর মাধ্যমে আবেদন করতে নিচের ৫টি ধাপ অনুসরণ করুন।

GermanProbashe.com এ একজন লেখক শুধু তাঁর অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে থাকেন।
তাই কোন কিছু করার আগে অবশ্যই অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সাম্প্রতিকতম তথ্য দেখে, শুনে, বুঝে করুন। ধন্যবাদ।

ধাপ-১

প্রথমে https://www.uni-assist.de/online/?lang=en এই লিঙ্কে যান। তারপর বামদিকের রেজিস্ট্রেশন বাটনে ক্লিক করুন । এখানে আপনি প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে নিন। আপনার ইউজার আইডি,পাসওয়ার্ড এবং Uni-assist নাম্বার (সবচেয়েগুরুত্বপূর্ণ) এমন জায়গায় লিখে রাখুন যেন হারিয়ে না যায়।

ধাপ-২

এখন লগ-ইন করে বামদিকের এপ্লিকেশন ট্যাবে ক্লিক করুন। দেখবেন এখানে প্রসেস গুলো সুন্দর ভাবে লিখা আছে। নিচের ক্রিয়েট এপ্লিকেশন বাটনে ক্লিক করলে একটা কোর্স সার্চের পেজ আসবে । এখানে পর্যায়ক্রমে আপনি সেমিস্টার, ইউনিভার্সিটি, এবং কোর্সের নাম দিয়ে সার্চ করবেন এবং আপনার কাংখিত সাবজেক্ট পেয়ে নিচের ক্রিয়েট এপ্লিকেশনে ক্লিক দিবেন।

ধাপ-৩

এবার শুরু হবে আসল কাজ। প্রথমেই পেজের উপরে এপ্লিকেশনের ধাপগুলো নিচের মত করে দেয়া থাকবে।

Edit applicationdata   Generalquestions(0/0)   Allocatefiles   Print applicationform   Submitonline

সবার নিচে Go to Next Step এ ক্লিক করে পরবর্তী পেজে চলে যান। এখানে আপনি কিছু জেনারেল প্রশ্নের উত্তর দিবেন। তিনটি স্টেপ আছে এখানে।

প্রথম স্টেপ এ কিছু ফিলাপ করার দরকার নেই যদি আপনি জার্মানিতে আগে কোন পড়াশুনা না করে থাকেন। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্টেপ এ আপনি একদম CV এর মত করে আপনি যা যা করেছেন সব লিখবেন। তবে কোন স্টাডি গ্যাপ রাখবেন না। গ্যাপ থাকলে ও গ্যাপ রাখবেন না। যেমন ধরুন আপনি ফাইনাল পরীক্ষা দেওয়ার ছয়মাস পর রেজাল্ট পেলেন। তাই বলে ওইখানে waiting period for result না লিখে বরং লিখুন Preparing for IELTS exam. অথবা লিখুন  Studying preparatory course. । আবার ও বলছি কোন ভাবেই আপনি স্টাডি গ্যাপ রাখবেন না। সব ফিলাপ হয়ে গেলে পরবর্তী ধাপে চলে যান।

ধাপ-৪

এইধাপে, আপনি ইউনিভার্সিটির রিকুয়ারমেন্ট অনুসারে সব ডকুমেন্টের স্ক্যান কপি একে একে আপলোড করবেন। এখানে প্রতিটা ডকুমেন্টের আপনি নাম দিবেন। যেমন এইচ এস সি এর একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টের স্ক্যান কপি আপলোড করে নাম দিলেন Academic Transcript of H.S.C । সব ডকুমেন্টস আপলোড হয়ে গেলে পরের ধাপে চলে যান।

ধাপ-৫

এই ধাপে আপনি আপনার এপ্লিকেশন ফর্মটি প্রিন্ট করে নিবেন।  Print application  বাটনে ক্লিক করলে একটা পিডিএফ ফাইল জেনারেট হবে যেটা আপনি সেভ করে রাখবেন। আমার এপ্লিকেশন ফর্মটা দিলাম নিচে। এটার সাথে মিলিয়ে নিতে পারেন। সব কিছু ভাল করে চেক করে নিন। তারপর সৃষ্টিকর্তার নাম নিয়ে সাবমিট বাটনে ক্লিক করে সেন্ড করে দিন । যদি সব ইনফরমেশন একেবারে ফিলাপ করতে না পারেন তবে সেভ করে নিন। পরবর্তীতে ও সেন্ড করতে পারবেন।

মনে রাখবেন আপনাকে এপ্লিকেশন অনলাইনে এবং অফলাইনে (হার্ড-কপি পাঠানো)দুই ভাবেই আবেদন করতে হবে। অনলাইনে সাবমিট করার পর আপনার এপ্লিকেশন ফর্মটা প্রিন্ট করে স্থান, তারিখ ও সিগনেচার করে সব ডকুমেন্টের (যেসব কপি আপনি আপলোড করেছেন) নোটারাইজড কপি একসাথে করে পাঠিয়ে দিন। ডকুমেন্ট পাঠানোর ক্ষেত্রে আমার কাছে ডি এইচ এল ই সবচেয়ে ভাল মনে হয়েছে। তবে অন্য কোন সার্ভিস দিয়েও পাঠাতে পারেন। তবে দ্রুত পাঠানোর বিষয়টা অবশ্যই মাথায় রাখবেন।

অনলাইনে আপনি এপ্লিকেশন করার পর আপনাকে ইমেইল করে টাকা পাঠানোর বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হবে। সেটা ব্যাংকে নিয়ে গেলেই ওরা আপনাকে সব ব্যবস্থা করে দিবে। মনে রাখবেন টাকা পাঠানোর পরেই কেবল ওরা আপনার এপ্লিকেশন প্রসেস করা শুরু করবে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব টাকাটা পাঠিয়ে দিবেন। একটি এপ্লিকেশনের জন্য আপনাকে ৭৫ ইউরো এবং প্রতি বাড়তি একটি এপ্লিকেশনের জন্য বাড়তি ১৫ ইউরো পাঠাতে হবে। অর্থাৎ আপনি যদি দুটি এপ্লিকেশন করেন তবে আপনাকে ৭৫+১৫ ইউরো এবং তিনটি করলে ৭৫+১৫+১৫ ইউরো পাঠাতে হবে। এই টাকা পাঠানোর জন্য আমাকে ব্যাংকে স্টুডেন্ট ফাইল খুলতে হয়েছিল। ডাচ বাংলা ব্যাংকের ভার্চুয়াল কার্ড দিয়ে নাকি টাকা দেওয়া টা অনেক সহজ। তবে আমার যাচাই করে দেখা হয়নি। এই ক্ষেত্রে সম্প্রতি যারা টাকা পাঠিয়েছেন তাদের সাথে যোগাযোগ করলে ভাল হয়।

সবক্ষেত্রে শুধু একটা কথাই বলব, যা করবেন বোঝে শুনে করবেন । না জেনে কোন কিছু করবেন না। কনফিউশন থাকলে গ্রুপে অথবা এই পোস্টের নিচে প্রশ্ন করুন। আপনার কোন প্রশ্নের উত্তর গ্রুপে না পেলে Uni-assist কে সরাসরি প্রশ্ন করুন। ওদের কন্টাক্ট পেজে গিয়ে আপনার প্রশ্ন লিখে পাঠিয়ে দিন। ওরা উত্তর দিতে বাধ্য। তবে উত্তর দিতে মাঝে মাঝে একটু সময় নেয়।

আপনাদের সুবিধার জন্য নিচের লিঙ্কে আমার এপ্লিকেশন ফর্মটা দিলাম। এটা দেখে ধারনা নিতে পারেন কিভাবে ফিলাপ করবেন।

https://drive.google.com/file/d/0B9Ir2bPqLuM6LXhWd0JqaHRuYmM/view?usp=sharing

ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও সময়ের অভাবে সবগুলো ধাপ বিস্তারিত লিখতে পারিনি। তাই এই বিষয়ে কোন প্রশ্ন থাকলে কোন সংকোচ রাখবেন না। সাধ্যমত উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। শুভ কামনা রইল ।

বিঃদ্রঃ- ডক এর লিঙ্ক কাজ না করলে অথবা বুঝতে সমস্যা হলে নিচের লিঙ্ক থেকে পুরো ডকটি নামিয়ে নিতে পারেন।

https://drive.google.com/file/d/0B9Ir2bPqLuM6NkNXZ1VJWkN1VWc/view?usp=sharing

 

 

মৃদুল রায়

গ্র্যাজুয়েট,

কম্পিউটার সিমুলেশন ইন সায়েন্স,

ইউনিভার্সিটি অফ ভুপার্টাল, জার্মানি।